ইরানে করোনার চতুর্থ ঢেউ, মোকাবিলায় ১০ দিনের লকডাউন

0 86
ইরানের রাজধানী তেহরানের একটি ব্যস্ততম সড়কে ৩০ মার্চের দৃশ্য। ছবি : সংগৃহীত

মহামারি নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের চতুর্থ ঢেউ মোকাবিলায় শনিবার থেকে ১০ দিনের লকডাউনে গেছে ইরান। দোকানপাট, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, স্কুল-কলেজ, থিয়েটার, খেলাধুলা ও শরীরচর্চা কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দেশটির ৩১টি প্রদেশের ২৩টিতে এমন নির্দেশনা জারি করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ইরানে যেকোনো ধরনের জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বুধবার থেকে শুরু হতে যাওয়া পবিত্র রমজান উপলক্ষেও কোনো ধরনের জমায়েত করা যাবে না।

 

গত সপ্তাহ থেকে ইরানে দৈনিক ২০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে। এ পর্যন্ত দেশটিতে ২০ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৬৪ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে ইরানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি টেলিভিশন বক্তৃতায় বলেন, ‘দুঃখজনক হলে সত্য আজ আমরা চতুর্থ ঢেউয়ে প্রবেশ করেছি।’

 

ব্যাপক সংক্রমণের পেছনে যুক্তরাজ্যে প্রথম ধরা পড়া করোনার নতুন ধরনকে দায়ী করেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। করোনার ধরনটি ইরাক থেকে ইরানে ঢুকে পড়েছে বলে দাবি তাঁর। এ ছাড়া ২০ মার্চ শুরু হওয়া নওরোজের (ফারসি নববর্ষ) ছুটিতে মানুষের ঘোরাঘুরিকেও নতুন ঢেউয়ের জন্য দায়ী করেন রুহানি।

 

করোনা সংক্রমণের নতুন ঢেউয়ের ফলে ইরানজুড়ে ২৫৭টি শহরে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

 

এদিকে, ইরানের টিকাদান কার্যক্রমেও ধীরগতি দেখা দিয়েছে। ২০ লাখ অর্ডারের মধ্যে রাশিয়ার তৈরি করোনার টিকা স্পুটনিক ভি চার লাখের বেশি ডোজ হাতে পাওয়ার কথা জানিয়েছে ইরানের সরকার। এ ছাড়া চীনের কাছ থেকেও আড়াই লাখ ডোজ টিকা পেয়েছে ইরান।

 

এ ছাড়া আট কোটি ৩০ লাখ জনগণের দেশটি অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৪২ লাখ টিকা অর্ডার দিয়ে রেখেছে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x