একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, আক্রান্ত আরও ১৫৩২

0 20

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে আরও ৮ হাজার ৮০৮ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৫৩২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩২ হাজার ৭৩৭ জন।

মরণঘাতি এই ভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিলও অব্যাহত আছে। নতুন করে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর রেকর্ড গড়েছে। ‍মৃত্যুর মিছিলে যোগ হয়েছে আরও ২৮ প্রাণ। যা একদিনে সর্বোচ্চ ফলে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৮০ জনে।

করোনার সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে রবিবার (২৪ মে) দুপুরে  সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) নিয়মিত বুলেটিনে এতথ্য জানানো হয়।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বুলেটিনে সংযুক্ত হয়ে এ স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক (অতিরিক্ত মহাপরিচালক প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান,  আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪১৫ জন। ফলে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট ৬ হাজার ১০৯ জন।

তিনি জানান, মৃত্যুবরণকারী ২৮ জনের মধ্যে পুরুষ ২৩  জন্য ও  নারী ৫ জন।  বয়স ভিত্তিক বিশ্লেষণে ৩১ থেকে ৪০ এর  মধ্যে ৩ জন, ৪১ থেকে ৫০ এর মধ্যে ৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৬১ বছর থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৫ জন, ৭১ বছর থেকে ৮০ মধ্যে ৩ জন ও ৮১ বছর থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ১ জন।

এলাকা ভিত্তিক বিশ্লেষণে মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ২০ জন ঢাকা বিভাগের, চট্টগ্রাম বিভাগের ৭ জন ও সিলেট বিভাগে ১ জন। ঢাকা বিভাগের মধ্যে ঢাকা সিটিতে ১৫ জন, নারায়ণগঞ্জে ৩ জন, গাজীপুরে ২ জন। চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে চট্টগ্রাম জেলায় ২ জন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ১ জন, নোয়াখালীতে ২ জন, চাঁদপুরে ১ জন ও কুমিল্লায় ১ জন। সিলেট সিটি কর্পোরেশন ১ জন।

২৮  জন মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ২৩ জন মারা গেছেন হাসপাতলে, বাসায় ৪ জন, ও মৃত অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন ১ জন।
তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৯ হাজার ১৮৪টি, পরীক্ষা করা হয়েছে আট হাজার ৯০৮টি নমুনা। এখন পর্যন্ত দুই লাখ ৪৩ হাজার ৫৮৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

তিনি আরও  জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ২৫৩ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন চার হাজার ৪৪৬ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৯৪ জন, এখন পর্যন্ত মোট ছাড়া পেয়েছেন দুই হাজার ১৬৩ জন।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে তিন হাজার ৬৩ জনকে। এখন পর্যন্ত দুই লাখ ৬৩ হাজার ৪৭৯ জনকে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন তিন হাজার ৮৭ জন, এখন পর্যন্ত মোট ছাড়া পেয়েছেন দুই লাখ আট হাজার ৩৪৬ জন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টিনে আছেন ৫৫ হাজার ১৫৩ জন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.