এক অমিতের হুংকারে আতঙ্কিত মানুষ, অভিমত অন্য অমিতের

113

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শহরে এসে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে হুংকার ছেড়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপির সর্ব ভারতী. সভাপতি অমিত শাহ ৷ আর তা শুনে রীতিমতো আতঙ্কিত বলে জানালেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র৷ অমিত শাহের আচরণের জন্য বাংলার মানুষ তাঁকে ক্ষমা করবেন না৷ কারণ তিনি বাংলায় এসে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন৷

মঙ্গলবার অমিত মিত্র এনআরসি নিয়ে অমিত শাহের মন্ত্যবের তীব্র সমালোচনা করেছেন৷ রাজ্যর মন্ত্রীর অভিমত, অমিত শাহ রাজ্যের মানুষের মনে আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন৷ তিনি অভিযোগ করেন, বাংলায় উৎসবের মুহূর্তে এসে এনআরসি নিয়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন বিজেপি সভাপতি। পাশাপাশি তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব প্রদানের যে ঘোষণা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করেছেন, তা আদৌ সংবিধান সম্মত কিনা? বরং তিনি তাঁকে আহ্বান করেন, দুর্গা পুজোর সময় এসে বাংলার কৃষ্টি কলা দেখে যাওয়ার জন্য৷

যদিও কলকাতা এসে মঙ্গলবার অমিত শাহ অভিযোগ করেছেন, বাংলার মানুষকে উস্কানি দিতে মমতাদিদি মিথ্যা কথা বলছেন। তিনি উল্লেখ করেন, দিদি বলছেন বাংলায় এনআরসি করতে দেবেন না। পাল্টা হিসেবে তিনি হুঁশিয়ারী দিয়েছেন, ভারতবর্ষে একজন অনুপ্রবেশকারীকেও থাকতে দেওয়া হবে না। দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে বেছে বেছে অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করা হবে বলে তিনি জানান৷ অমিত শাহ তাঁর ভাষণে বার্তা দেন, আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) পাশ করা হবে এবং তারপরে এনআরসি কার্যকর হবে। তাছাড়া এদিন অমিত শাহ মনে করিয়ে দেন, ২০০৫ সালে সংসদে তৃণমূল নেত্রী জানিয়েছিলেন অনুপ্রবেশকারীরা বামফ্রন্টের ভোটব্যাংক এবং সেদিনর সেই ভিডিওটি দেখার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনুরোধ করেন তিনি ৷কলকাতা

x