করোনা মুক্ত হওয়ার পরও বিশেষ নজর থাক খাদ্যতালিকায়, জেনে নিন কী কী খাবেন

এমন খাবার খেতে হবে যা আপনাকে সুস্থ করতে সাহায্য করবে।

308

করোনাভাইরাসের বাড়বাড়ন্ত খানিকটা কমলেও রোগ পুরোপুরি কমেনি। এখনও বহু মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। সঙ্গে সুস্থও হচ্ছেন অনেকে। তবে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার ১৪ দিন পর তা নেগেটিভ এলেই যে নিশ্চিন্ত হওয়া যাবে এমন নয়। করোনা নেগেটিভ এলেও সতর্ক থাকতে হবে। এই মারণ ভাইরাস শরীরে নানা রকম ভাবে ক্ষতি করে। আর শরীরের এই ঘাটতিপূরণ করা এতটাও সহজ নয়। তাই করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পর বিশেষ নজর রাখতে হবে স্বাস্থ্যের। এমন খাবার খেতে হবে যা আপনাকে সুস্থ করতে সাহায্য করবে।

 

প্রোটিনযুক্ত খান- প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখুন প্রোটিন (Protein) যুক্ত খাবার। ব্রেকফার্স্টে অবশ্যেই একটা করে ডিম খান। ডিমের সাদা অংশ প্রোটিনে পরিপূর্ণ। চাইলে দিনে দুটো ডিম (Egg) সেদ্ধ খেতে পারেন। এর সঙ্গে নিয়মিত এক কাপ দুধ (Milk) খাওয়া দরকার। দুধে শুধু ক্যালসিয়াম নয় বরং প্রোটিনও থাকে। এই সময় উচ্চমানের প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া উপকারী। দুধ ছাড়া নিয়মিত বাদাম খান। বাদামের গুণে কার্ডিওভাসকুলার রোগ থেকে যেমন রক্ষা পেতে পারেন, তেমনই আপনার ত্বকের জন্য বাদাম উপকারী। এছাড়াও নিয়মিত মুসুর ডাল, ওটস (Oats) ও রোজ এক বাটি দই খান।

 

ক্যালোরিযুক্ত খাবার- করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার পর পরিবর্তন করুন খাদ্যতালিকায়। যোগ করুন ক্যালোরি যুক্ত খাবার। ক্যালোরি মানেই তা শরীরে শুধু ফ্যাট বৃদ্ধি করবে এমন নয়। সঠিক পুষ্টির জন্য রোজ নির্দিষ্ট পরিমাণ ক্যালোরি যুক্ত খাবার খাওয়া দরকার। তাই খাদ্যতালিকায় ঘি, মাখন (Butter), পনির রাখুন। আর অবশ্যই রোজ খেঁজুর, কলার মতো ফল খান।

 

সবুজ শাক-সবজি- সব ধরনের রোগীদের সবুজ সবজি খাওয়ার পরামর্শ দেন ডাক্তাররা। এর গুণে শরীরের একাধিক ঘাটতি পূরণ হয়। তবে, সবজি খাওয়া উচিত বলে তা তেল-মশলা দিয়ে রেঁধে ফেললেন এমন করবেন না। নিয়মিত ভেজিটেবল স্যুপ খান। বিনস, ক্যাপসিকাম, গাজরের মতো সবজি দিয়ে স্যুপ রাঁধুন। এছাড়াও, পালং শাক, ব্রোকোলির মতো খাবার রাখুন খাদ্যতালিকায়।

 

x