কালোজিরার চমকপ্রদ ৭ গুণ

294
লাইফস্টাইল ডেস্ক : প্রাচীন মিশরে থেকেই কালোজিরা ব্যবহারের সূত্রপাত। হাজার বছর ধরে বিভিন্ন কাজে ব্যবহার হয়ে আসছে এই কালোজিরা। হাদিসে আছে, ‘মৃত্যু ব্যতীত সকল রোগের ঔষধ হল কালোজিরা।’ বিভিন্ন সময় নানান গবেষণায় উঠে এসেছে এর নানান গুণ।

ব্রেকিংনিউজ পাঠকদের জন্য আজ কালোজিরার কয়েকটি দারুণ ও সহজ ব্যবহারের কথা তুলে ধরা হল-
১) হৃদরোগ প্রতিরোধে: হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাতে কালোজিরার জুড়ি নেই। প্রতিদিন দুইবার দুধের সাথে কালোজিরা মিশিয়ে খেলে হৃদরোগের সমস্যা কমে।

২) শ্বাসকষ্টে শান্তি: অ্যাজমা, ক্রনিক কাশিসহ নানাবিধ শ্বাসকষ্টের সমস্যায় কালোজিরার ব্যবহার বহু পুরনো। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে হালকা গরম পানির সাথে কিছুটা মধু ও কালোজিরা মিশিয়ে খেলে বেশ উপকার পাওয়া যাবে। এভাবে টানা ৪০ দিন খাওয়া গেলে খুব ভাল হয়।

৩) উচ্চ রক্তচাপ: আমাদের দেশে অনেকেই উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন। আর এই কারণে প্রতি বছরই অনেকে হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের শিকার হন। প্রতিদিন অল্প একটু কালোজিরা পানির সাথে খেয়ে নিলে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থাকবে নিয়ন্ত্রণে। এক্ষেত্রে কালোজিরার তেল খাওয়া বেশ উপকারী।

৪) ব্রণের সমস্যা: দামি ক্রিম, ফেসওয়াশ আর বিউটি পার্লারে ফেসিয়ালের অযথা টাকা খরচ না করে আধা কেজি কালোজিরা কিনুন। প্রতমে কালোজিরা ভালভাবে ধুয়ে বেটে নিন। এরপর কিছুটা লেবুর রস আর চিনি মিশিয়ে পেস্টের মত তৈরি করুন। দশমিনিট রেখে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। কয়েক সপ্তাহ এই পেস্ট ব্যবহারে ব্রণ পালাতে বাধ্য।

৫) চুলপড়া রোধ: চুলপড়া রোধে কালোজিরার তেলের সুখ্যাতি নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। এই তেল শুধু চুল পড়াই রোধ করে না, বরং নতুন গজাতে ও চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে।

৬) অতিরিক্ত ওজন: প্রতিরাতে ঘুমানোর আগে কিছুটা টকদইয়ের সাথে কালোজিরা বাটা মিশিয়ে খান। ওজন কমতে শুরু করবে খুব দ্রুত।

৭) পাইলসের সমস্যা: কোষ্ঠকাঠিন্য কষ্ট শুধু ভুক্তভোগীরাই বোঝেন। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রং চায়ের সঙ্গে কালোজিরার তেল মিশিয়ে খান প্রতিদিন।

কালোজিরার গুণ বর্ণনা করে শেষ করা যাবে না। তবে আমাদের প্রত্যহিক জীবনে কালোজিরার ব্যবহার অনেক সমস্যা থেকেই মুক্ত রাখতে পারে।

ব্রেকিংনিউজ/

x