কুমিল্লার মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদা জিয়া

0 442

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: কুমিল্লায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা মামলায় জামিন পেতে উচ্চ আদালতে আবেদন করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

মঙ্গলবার (০২ অক্টোবর) আদালতের অনুমতি নিয়ে বেগম জিয়ার আইনজীবী কায়সার কামাল হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ জামিন আবেদন করেন।

এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের কায়সার কামাল বলেন, ‘গত ১৩ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার বিচারিক আদালত বিএনপি চেয়ারপারসনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। এরপর আদেশের সত্যায়িত অনুলিপি (সার্টিফায়েড কপি) চেয়ে আবেদন করা হলেও প্রায় ২০ দিনেও আমরা তা পাইনি।’

এ বিষয়টি উচ্চ আদালতকে জানিয়ে বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের বেঞ্চ থেকে অনুমতি নিয়ে সংশ্লিষ্ট শাখায় বেগম জিয়ার জামিন আবেদন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। চলতি সপ্তাহেই জামিন আবেদনের শুনানি হতে পারে বলেও তিনি জানান।

কায়সার কামাল অভিযোগ করে বলেন, ‘রাজনৈতিকভাবে হেনস্থার জন্যই বেগম জিয়াকে আটকে রাখতে এবং তাঁর কারাবাস দীর্ঘায়িত করতেই বিচারিক আদালত সার্টিফায়েড কপি দিতে বিলম্ব করছে। বিচার বিভাগ স্বাধীন হলে এমনটি হওয়ার সুযোগ থাকতো না।’

২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি বিএনপির লাগাতার হরতাল-অবরোধের মধ্যে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে একটি নৈশকোচে পেট্রোল বোমা হামলায় ৮ যাত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে একটি হত্যা ও বিস্ফোরক মামলা দায়ের করে পুলিশ।

এক পর্যায়ে পুলিশের আবেদনে বিস্ফোরক আইনের মামলাটি বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় রূপান্তর করা হয়।

এদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ে ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরানো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন। তবে ওই মামলায় খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হলেও নতুন আরও একাধিক মামলা থাকার কারণে তার মুক্তি হচ্ছে না।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

Leave A Reply

Your email address will not be published.