কুড়িগ্রামের রৌমারীকে পৌরসভার গেজেট প্রকাশ করায় বর্তমান সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকাবাসি

73

মাজহারুল ইসলাম, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রাম জেলার,রৌমারী সদরকে পৌরসভা হিসেবে গেজেট প্রকাশ করায় উপজেলার মানুষের মাঝে আনন্দের জোয়ার বইছে। গত ২৫ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ১০ অক্টোবর ২০২১ ইং গণপ্রজাতন্ত্রিী বাংলাদেশ সরকার স্থানীয় সরকার, পল্লিউন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় স্থানীয় সরকার বিভাগ কতৃক এ প্রজ্ঞাপন জারি করেন।

দেশ স্বাধীনের ৫০ বছরে রৌমারী সদরকে পৌরসভা ঘোষনা করায় রৌমারীর উন্নয়নের নব দিগন্তের সুচনা হলো । রৌমারী বাংলাদেশ স্বাধীনতা যুদ্ধের মুক্তাঞ্চল নামে খ্যাত। সারাদেশ যখন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর দখলে ঠিক সেসময় রৌমারী হানাদার মুক্ত মুক্তাঞ্চল ছিলো রৌমারী।

যেখানে ৬৫ হাজার মুক্তিযোদ্ধা প্রশিক্ষণ নিয়ে হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে। যাহা কালের সাক্ষি হিসেবে রৌমারী সিজিজামান উচ্চবিদ্যালয় মাঠটি দাঁড়িয়ে আছে ্ঐতিহাসিক চানমারি। তবে এলাকাবাসির দীর্ঘ ৫০ বছরের দাবি মেহেরপুর জেলা হলে , রৌমারী স্বাধীনতার মুক্তাঞ্চলটি জেলা হওয়ার অধিকার রাখে।

রৌমারী সদর পৌরসভার গ্যাজেট প্রকাশে ৩ নং বন্দবেড়, ২নং শৌলমারী ও রৌমারী ইউনিয়নের আংশিক কেটে পূর্ণাঙ্গ পৌরসভা গঠনে রু রেখা প্রকাশ করা হয়েছে। পৌরসভা গঠনে রৌমারী ইউনিয়ন রৌমারী সদর, রৌমারী আলগা, রৌমারী সদরের চুলিয়ারচর মৌজা।বন্দবেড় ইউনিয়নের জিগ্নি কান্দি ও বন্দবেড় ইউনিয়নের বন্দবেড় মৌজা।

২নং শৌলমারী ইউনিয়নের বাউশমারী, শৌলমারী ও টালুয়ারচর মিলে রৌমারী পৌরসভার ছক তৈয়ার করে গ্যাজেট প্রকাশ করা হয়েছে। এটি বাস্তবায়ন হলে রৌমারী উন্নয়নের এক ধাপ এগিয়ে যাবেন বলে ধারনা করা হচ্ছে।

তবে উন্নয়ন ব্যাহত বা বাধা গ্রস্থ্য করতে নানা অজুহাতে একটি মহল ষড়যন্ত্র করছে। এদিকে সারা দেশের ন্যায় কুড়িগ্রমের রৌমারী ,শৌলমারী ও যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদের মেয়াদকাল উত্তির্ণ হয়েছে প্রায় ৬ মাস। পৌরসভার গ্যাজেট প্রকাশে একদিকে যেমন উল্লাস বইছে, অপরদিকে হতাশারও হাতছানি বইছে।

যেহেতু ৩টি ইউনিয়নের আংশিক কেটে পৌরসভা গ্যাজেট প্রকাশ করা হয়েছে, সেক্ষেত্রে ৪টি ইউনিয়নের ৯টি করে ওয়ার্ডের সীমানা নির্ধারণ ও পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড গঠন করলেতো আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সহজ হবে। এনিয়ে বিশিষ্ট জনদের মাঝে চলছে নানা গুঞ্জন।

রৌমারী সদরকে পৌরসভা গেজেট প্রকাশ করায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রি জাকির হেসেনর ঐকান্তিক প্রচেষ্টাকে এলাকাবাসি সাধুবাদ জানিয়েছে।

x