কুড়িগ্রামের রৌমারী ও রাজিবপুরে বন্যা পরিস্তিতি আরও অবনতি হতাশায় ৩ লাখ পানি বন্দি মানূষ

১৮৫

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের পূর্ব পার সীমান্ত ঘেষা রৌমারী ও রাজিবপুরসহ দুটি উপজেলার প্রায় ৩ লাখ মানুষ দীর্ঘদিন যাবৎ পানি বন্দি হয়ে  মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এদিকে মানুষের খাদ্য সংকটের পাশাপাশি বড় সংকটে রয়েছে গু খামারিরা। অপরদিকে ঘরে ধানচাল থাকলেও রান্নার অভাবে অনেক সময় না খেয়ে জীবনযাপন করছেন অনেকেই।

অপরদিকে প্রধান মন্ত্রীর ত্রান দেওয়া অব্যাহত রয়েছে কিন্ত্র বানভাসিদের চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল বলে মনে করছেন অনেকেই। এবিষয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান সম্প্রতিকালের বন্যায় গরুর খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে এবিষয় আমি উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে জানিয়েছি বরাদ্দ আসছে আমরা তাদের সহযোগিতা করবো।

এবিষয় উপজেলা প্রকৌশলী যুবায়েদ হোসেন জানায় রৌমারী উপজেলার প্রায় রাস্তাঘাট তলিয়ে গেছে ক্ষয়ক্ষতির বিষয় গুলো এখনই বলা যাচ্ছে না পানি কমে গেলে বিস্তারিত জানানো যাবে।

রৌমারী বন্যা দূর্গোতদের কি হালচাল তা নিয়ে কথা হয় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল্লার সঙ্গে, তিনি জানান
এখানে সবচাইতে সমস্যা হচ্ছে গু খামারিদের। উপজেলার সবকয়টি ইউনিয়ন বন্যার পানিতে ডুবে গেছে যারফলে বিপাকে পড়েছে খামারিরা।

Comments are closed.