ক্রিকেটারদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে দূরে থাকতে বললেন মাশরাফী

১৪৮
বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। ছবি : সংগৃহীত

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাজে সময় পার করছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং, সব বিভাগেই ফুটে উঠছে দুর্বলতা। সুপার টুয়েলভে তিন ম্যাচ খেলে তিনটিতেই হেরেছে বাংলাদেশ। সবমিলিয়ে কড়া সমালোচনা হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে নিয়ে।

চলমান টুর্নামেন্টে বাংলাদেশকে বেশি ভোগাচ্ছে ফিল্ডিং। প্রতিটি ম্যাচেই ক্যাচ মিসের খেসারত দিতে হয়েছে পুরো দলকে। এই পরিস্থিতি দেখে হতাশ বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাও। খেলায় মনোযোগ রাখতে টুর্নামেন্ট চলাকালীন খেলোয়াড়দের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিলেন সাবেক অধিনায়ক।

গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতে তামিম ইকবালের সঙ্গে এক ফেসবুক লাইভে এ কথা বলেন মাশরাফী। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিমের দাবি, অনুশীলনে ঘাটতি নেই দলে। কেন ফিল্ডিংয়ে সমস্যা হচ্ছে সেটা বুঝতে পারছেন না তিনি।

এ ব্যাপারে তামিম বলেন, ‘অনুশীলনে সবাই খুবই পরিশ্রম করে। ফিল্ডিং, ক্যাচিং—সবকিছু নিয়েই কাজ করে। কিন্তু ম্যাচে কোনো কারণে সেটা কাজে আসছে না। ম্যাচে দলের সেরা ফিল্ডাররা যদি ক্যাচ মিস করে, তাহলে তো কিছু বলার থাকে না। এই বিষয়টিকে ব্যাটসম্যানদের অফ ফর্মের মতো দেখতে হবে। আমাদের সবাই মিলে বসে আলোচনা করে খুঁজে বের করতে হবে, কোথায় ভুল হচ্ছে।’

আর মাশরাফী বলেন, ‘দুই বছর ধরে এমন হওয়া সত্ত্বেও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক দলের সঙ্গে আছেন। আমাদের সবাইকে আরেকটু সাহসী হতে হবে। ফিল্ডিং হচ্ছে অনেক সাহসী একটা ব্যাপার। আমার মনে হয় বর্তমান প্রেক্ষাপটে, কোনো টুর্নামেন্টে খেলোয়াড়ের জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নিষিদ্ধ করা উচিত। বিসিবি থেকে কঠোর নিয়ম করা উচিত এ বিষয়ে। যে চাপগুলো আসে, এগুলো সম্পূর্ণভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে আসে। আজকাল খুব বাজেভাবে ক্রিকেটারদের আক্রমণ করা হয়। যদি ক্রিকেটাররা তা সহ্য করতে পারত, তখন ভিন্ন কিছু হতো। কিন্তু এখন তো ক্রিকেটাররা এগুলো নিতে পারছে না। ফলে, এটা করা উচিত।’

Comments are closed.