খাবারের হাহাকার, ছুটছে মানুষ, দেশজুড়ে দুর্ভিক্ষ: রিজভী

0 ৩১৬

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকার আগাম প্রস্তুতি না নেয়ায় দেশে করোনা সংক্রমিত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেছেন, ‘আজকে করোনার কারণে সারা দেশে খাবারের জন্য হাহাকার চলছে। কর্মহীন মানুষ খাবার খুঁজছে। তারা খাবারের জন্য ছোটাছুটি করছেন। দেশে দুর্ভিক্ষের অবস্থা বিরাজ করছে।’

রিজভী বলেন, ‘এই দুঃসময়ে বিএনপি নেতাকর্মীরা পকেটের টাকায় ত্রাণ দিচ্ছে আর সরকারি দলের মেম্বার, চেয়ারম্যানরা ত্রাণের চাল ডাল তেল চুরি করছে।’

শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) সকালে মোহাম্মদপুরে দুঃস্থ ও গরিব মানুষের মাঝে বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ও রান্না করা খাবার বিতরণ করার সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মাহবুবুল ইসলামের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের আয়োজন করা হয়।ব্রেকিংনিউজ

রুহুল কবির রিজভী সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘আজকে বাংলাদেশ সহ গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাস বিপর্যয় নামিয়ে দিয়েছে। মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে করোনা মোকাবিলায় যে ধরনের আগাম প্রস্তুতি নেয়া দরকার ছিলো সেটা বর্তমান সরকার করেনি। অন্যদিকে ভিয়েতনাম, ভুটানসহ অনেক দেশ আছে যারা যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল বলে সেসব দেশে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা কম। ফলে বাংলাদেশে প্রস্তুতি না থাকায় করোনা আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘সারা দেশে কর্মহীন মানুষ খাবার পাচ্ছে না। সারা দেশে খাবারের হাহাকার চলছে। দেশে দুর্ভিক্ষের অবস্থা বিরাজ করছে। কিন্তু আমরা কি দেখছি নিম্নআয়ের মানুষ যারা দিন আনে দিন খায় তারা খাবার সংগ্রহ করতে পারছে না। তারা ক্ষুধার জ্বালায় হাহাকার করছে। ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মধ্যে পতিত হয়েছে দেশ।’

রিজভী বলেন, ‘এই পরিস্থিতির মধ্যে সাধারণ জনগণ সরকারি ত্রাণ পাচ্ছে না। বরং ত্রাণের চাল তেল ডাল পাওয়া যাচ্ছে আওয়ামী লীগের মেম্বার চেয়ারম্যানের বাড়িতে। হাজার হাজার বস্তা চাল পাওয়া যাচ্ছে তাদের বাসায়। মহামারীর মধ্যে শুরু হয়েছে চাল ডাল চোরদের উৎসব। এটাই কি গরিব মানুষকে সহায়তা করা। এটাই কি দুর্যোগ মোকাবিলা করা?’

মহামারির মধ্যেও বিএনপি, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল, মহিলা দল, সব অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা গরিব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘কিন্তু সরকারের তা সহ্য হয় না। বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করা হচ্ছে, মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করা হচ্ছে। এদিকে সরকারি দলের লোকেরা ত্রাণ চুরি করছে। আর বিএনপির লোকেরা পকেটের টাকায় ত্রাণ দিচ্ছে। এজন্য সরকার জুলুমের পথ বেছে নিয়েছে। মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করছে। তারা যতই গ্রেফতার করুক আমরা এই মহামারিতে মানুষের পাশে আছি এবং থাকবো। সামনে রমজান মাসেও গরিব মানুষের পাশে দাঁড়ানো অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.