গাইবান্ধায় বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

0 25

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গা্বইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে স্বামী পরিত্যক্তা এক নারী (১৯) কে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

এ ঘটনায় বুধবার রাতে ওই নারী বাদি হয়ে স্থানীয় থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। এতে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের নলডাঙ্গা শিকশহর গ্রামের বকুল মিয়ার ছেলে সোহেল (২৮) কে অভিযুক্ত করা হয়। মেয়েটি জানায়,তার সঙ্গে সোহেলের দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্ক ছিল। 

এরই এক পর্যায়ে তাকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ঈদের দিন সোমবার সন্ধ্যায় কাটাখালী বালুয়া এলাকা থেকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে বাগদা গুচ্ছগ্রামে যায়। সেখানে সোহেল তার ভগ্নিপতির বাড়ীতে মেয়েটিকে নিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে।পরে ওই দিন মধ্যরাতে তাকে পুনরায় মোটরসাইকেলে করে কাটাখালী বালুয়া বাজারে রেখে সোহেল সটকে পড়ে। 

বাজারের এক হোটেল শ্রমিক জানান, এ সময় মেয়েটি কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। তার আকুতি মিনতির প্রেক্ষিতে তিনি গুচ্ছগ্রামে তাকে তার মায়ের নিকট রেখে আসে।এরপর গত তিনদিনেও বিয়ে না করে সোহেল মোবাইল ফোন বন্ধ রেখে আত্মগোপন করে। 

নিরুপয় হয়ে মেয়েটি গোবিন্দগঞ্জ থানায় এই অভিযোগ করে। স্থানীয় থানার এসআই শফিক মন্ডল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় থানার অভিযোগের পর থেকে সোহেল পলাতক রয়েছে। 

থানার ওসি একেএম মেহেদী হানান জানান বিষয়টি আমলে নেওয়া হয়েছে। সোহেলকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে, এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য বিভিন্ন স্থানে যোগাযোগের চেষ্টা করেও সোহেলকে পাওয়া যায়নি। এমনকি তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.