চাটমোহরে সেতুর সংযোগ সড়ক হয়নি দুই যুগেও

২২৪

চাটমোহর (পাবনা) উপজেলা সংবাদদাতা: পাবনার চাটমোহরে একটি সড়কের সংযোগ সেতু হয়নি প্রায় দুই যগেও। চাটমোহর উপজেলার নিমাইচড়ায় সমাজ গ্রামে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ৭০ ফুট একটি সেতুর্ প্রায় দুই যুগ ধরে জনসাধারণের কোন কাজে আসছে না। সেতুটি সংস্কার না করায় পাঁচ গ্রামের মানুষ যাতায়াতসহ কৃষি কাজের সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত রয়েছে। সরকারের অর্থ অপচয় করা হয়েছে এই সেতু নির্মাণে।

সমাজ মিয়াপাড়া-বলচপুর সংলগ্ন করতোয়া শাখা সমাজ ঝিটকি কাটা নদীর ওপর ২০০১ সালে সেতুটি নির্মিত হয়। নির্মাণের বছর থেকেই সেতুর দুই পাশের মাটি বন্যায় ভেঙে গেলেও এ পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি। এতে সমাজ বলচপুর, মিয়াপাড়া, গদাইরূপসি, বানিয়াবহু, সাতবাড়িয়া, ময়দানদিঘীসহ কয়েক গ্রামের মানুষকে অন্য রাস্তা ঘুরে আসা-যাওয়া করতে হচ্ছে।

সংলগ্ন বাসিন্দা আবদুল কুদ্দুস বলেন, ২০০১ সালে সেতুটি নির্মান করা হয়েছে। কিন্তু নির্মানের দীর্ঘ বছরেও সেতুটি কোন কাজে আসছে না এলাকাবাসীর। তিনি আরো বলে, সেতুর দু পাশে গোড়ায় মাটি ভরাটসহ রাস্তাটি উচ্চ করে তৈরি করতে হবে।

সমাজ গ্রামের ব্যবসায়ী জাহিদ হাসান বলেন, প্রায় ২১ বছর আগে তৈরি করা হয়েছিল ৭০ ফুট দীর্ঘ একটি কংক্রিটের সেতু। তবে এটি কখনোই ব্যবহার করা হয়নি। কারণ এই সেতুর দু’পাশে নেই সংযোগ সড়ক। তাই সেতুটি অনেকটা দ্বীপের মতোই একাকী দাঁড়িয়ে আছে।

নিমাইচড়া চেয়ারম্যান মোছাঃ নুরজাহান বেগম মুক্তি জানান,আমি নবনির্বাচীত চেয়ারম্যান, সেতু নির্মান বিষয়ে আমার ভালো জানা নেই, গ্রামের ওই রাস্তাটি অনেক প্রয়োজন ও জনগুরুত্বপূর্ন, রাস্তাটি দ্রুত মেরামত করা দরকার।

উপজেলা প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ বলেন, আমি কয়েক মাস হচ্ছে উপজেলায় যোগদান করেছি। আমার জানামতে সেতুটি এলজিইডি করেনি। এলজিইডি নির্মিত সেতুর কোনও সমস্যা হলে দ্রুত সংস্কার করা হয়। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সংস্কারের চেষ্টা করবো আমরা।

Comments are closed.