তানোরে সাংবাদিক মিজানের বিরুদ্ধে গোল্লাপাড়া হাটের মুচির জায়গা দখলে নেয়ার অভিযোগ

0 77
তানোর প্রতিনিধি:  তানোরে সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে গোল্লাপাড়া হাটের মুচি পট্রীর এক মুচির দোকানের জায়গা দখলে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এঘটনায় ভূক্ত ভোগী ওই মুচি বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তবে, অভিযোগের বিষয়ে এখনো কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। ফলে জায়গায় বসে ব্যবসা করতে না পারায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপনে পড়তে যাচ্ছেন মুচি শুকলাল। 

এলাকাবাসী ও অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, তানোর পৌর এলাকার হরিদেরপুর গ্রামের মৃত মেঘলাল রবিদাসের ছেলে শুকলাল রবিদাস দীর্ঘদিন ধরে তানোর গোল্লাপাড়া হাটের মুচি পট্রীর ফাঁকা জায়গায় বসে (জুতা স্যান্ডেল মেরামত) মুচির কাজ করে আসছিলেন। প্রতিদিনের ন্যায় গত (২২অক্টোবর) বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে শুকলাল গোল্লাপাড়া হাটের তার দোকানের জায়গায় গিয়ে দেখেন সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজান ও তার মনোনিত আরো একজন শুকলালের জায়গায় টেবিল ও চেয়ার রেখে ওই জায়গা দখলে নিয়ে বসে আছেন। এসময় শুকলাল তার জায়গা ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করেন।

এনিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাংবাদিক মিজান ওই জায়গা ছাড়বেনা মর্মে শুকলালকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও বিভিন্ন প্রকার ভয় ভীতি ও হুমকি প্রদান করেন। এঘটনায় মুচি শুকলাল তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার অভিযোগের বিষয়ে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি। অপর দিকে অভিযোগ করায় সাংবাদিক মিজান আরো ক্ষিপ্ত হয়ে শুকলালকে অভিযোগ তুলে নেয়ার জন্য অব্যাহত ভাবে হুমকি দিচ্ছেন।

তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো সম্প্রতি গোল্লাপাড়া হাটের কোটি টাকা মুল্যে’র সরকারী জায়গা জামায়াত নেতা মুসলেম উদ্দিনের ছেলে সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজান লাইব্রেরীর দোকান ও পৌর বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক আরশাদ আলীর ছেলে রায়হানুল হক রায়হানের চেম্বার ও ভাই তৌহিদুল ইসলাসহ তিনটি দোকান গোপনে লীজ দিয়ে প্রায় দেড় শতাধিক দোকান ঘর ভেঙ্গে ফেলেন।

এবিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজান উল্টো প্রশ্ন করে বলেন আমি কেন জায়গা দখল করতে যাবো ?। আমি জানিনা জানিয়ে জানিয়ে তিনি বলেন ছোট বিষয়ে টেনে বড় করা ঠিকনা। তিনি আরো বলেন আমি শুকলালকে চিনিনা।

এব্যাপারে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্বরত তানোর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্বিকৃতি প্রামানিক বলেন, বিষয়টি দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.