দুই কলেজ ছাত্র পরিবারকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকি

0 29

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ মামলা তুলে না নিলে দুই কলেজ ছাত্র পরিবারকে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে ফাঁসানোর হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত কয়েকে দিন থেকে বিজিবি’র গোয়েন্দা শাখার সদস্য জসিম উদ্দিন ও সিরাজুল ইসলাম অপরিচিত মোবাইল নাম্বার থেকে এ হুমকি দেওয়া হচ্ছে। 

এবিষয়ে মুশফিক জামান মামুনের পিতা আলহাজ্ব সৈয়দ জামাল বিভিন্ন দপ্তরে অবগত করেছেন। তবে ইতোমধ্যে ওই বিজিবি’র গোয়েন্দা শাখার দুই সদস্যকে প্রত্যাহার করেছেন সংশ্লিষ্ট দপ্তর। তবে গোয়েন্দা শাখার রোকনুজ্জামান রোকন বহাল তবিয়তে থেকেই নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছেন বলে একাধীক সুত্রে জানা যায়।

কলেজ ছাত্রের বাবা আলহাজ্ব সৈয়দজ্জামাল অভিযোগ করে বলেন, যেহেতু আমরা সীমান্ত এলাকায় বসবাস করি। কাজের তাগিদে হাটবাজারের কাজ শেষে নিজ বাড়িতে ফিরতে অনেক সময় রাতেও হয়। তাই বিজিবি’র  সদস্যরা আমাদের ক্ষতি করতে পারে। বিভিন্ন ভাবে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছে। নিরাপত্তা জনিত কারনে বাসায় থাকতে পারছিনা।

মামুন ও হিমু জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর তাদের কাছ থেকে রোকনের অনেক অপকর্মের তথ্য পাওয়া গেছে। সেই সাথে তাদের মামুনের সপরিবারকে বিভিন্ন ভাবে হেনস্তা করারও অভিযোগ উঠে।

প্রসঙ্গত, উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের আলগারচর গ্রামের সৈয়দজ্জামালের ছেলে মুশফিকুজ্জামান মামুন ও সাদেক হোসেনের ছেলে হেমায়েত উল্লাহ হিমু বিজিবি’র গোয়েন্দা শাখার সদস্য জসিম উদ্দিনের সাথে বাকবিতর পূর্ব জের ধরে তাকে ১৯৭ পিচ ইয়াবা পকেটে ঢুকিয়ে দিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ওই ছাত্রের পিতা সৈয়দ জামান এ অভিযোগ তোলেন এবং বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। গত ২২ জুন (সোমবার) দুপুরের দিকে উপজেলার সায়দাবাদ এলাকা থেকে মামুনকে গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় তার চাচাত ভাই হেমায়েত উল্ল্যাহ হিমুকেও গ্রেফতার করে বিজিবি। মুশফিকুজ্জামান মামুন ঢাকার ‘মাইলস্টোন স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ইংরেজি ভার্সনে এইচএসসি পাশ করে বর্তমানে ‘শান্ত মরিয়মে’ অধ্যায়নরত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.