দেশের মানুষের কাছে নৌকার কোনো বিকল্প নেই : প্রধানমন্ত্রী

41
আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : ফোকাস বাংলা

প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, তাঁর দল প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করে যাওয়ায় দেশের মানুষের কাছে নৌকা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।

আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ের মূল অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তারা (দেশবাসী) জানে, নৌকা আওয়ামী লীগের নির্বাচনি প্রতীক এবং নৌকা ছাড়া তাদের গতি নেই। কেননা, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে নিজের ভাগ্য গড়ার জন্য নয়, বরং অনেক মানুষের ভাগ্য গড়তে এবং জন্মলগ্ন থেকে সে আদর্শ নিয়েই রাজনীতি করে যাচ্ছে।’

সবার অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রসঙ্গে বিএনপিকে উদ্দেশ করে শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘নেতৃত্বশূন্য কোনো দল নির্বাচন করবে, আর জনগণ ভোট দেবে কী দেখে? ওই চোর, ঠগবাজ এতিমের অর্থ আত্মসাৎকারী অথবা অস্ত্র চোরাকারবারী, সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের জনগণ ভোট দেবে দেশ পরিচালনার জন্য? তারা তো তা দেবে না। বাংলাদেশের মানুষ এ ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা পদ্মা সেতু করেছি নিজেদের অর্থে, অথচ এটা নিয়ে বিএনপি প্রশ্ন তোলে। যাদের আপাদমস্তক দুর্নীতিতে ভরা, তারা আবার প্রশ্ন তোলে কোন মুখে?’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ওরা তো কিছুই করে যেতে পারেনি। জাতির পিতা তাঁর প্রথম জাপান সফরে যে যমুনা সেতু করার উদ্যোগ নেন, সেটা তাঁকে হত্যার পর ক্ষমতায় আসা জিয়াউর রহমান বন্ধ করে দেন। পরে এরশাদ ক্ষমতায় এসে আবার উদ্যোগ নেন সেতুটি করার। কিন্তু, খালেদা জিয়া ক্ষমতায় আসার পর সেতুর কাজ খুব বেশি এগোতে পারেনি, কারণ সব জায়গায় তাদের ছিল কমিশন খাওয়ার অভ্যাস।’

মাটির টানে, নাড়ির টানে সরকার এদেশের মানুষের ভাগ্য বিনির্মাণে কাজ করছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের আদর্শই হচ্ছে জনগণের সেবা করা।’

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর অন্যতম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ, কেন্দ্রীয় সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, মহানগর উত্তর এবং দক্ষিণের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, আবু আহমেদ মান্নাফী প্রমুখ।

দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ গণভবন থেকে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

x