পর্যটক টানতে মাসব্যাপী বিভিন্ন আয়োজন থাইল্যান্ডের পাতায়ায়

19

নভেম্বর থেকে নতুন বছরের শুরু পর্যন্ত আট সপ্তাহ ব্যাপী ইভেন্টের বড় সিরিজ আয়োজন করতে চলছে থাইল্যান্ডের পাতায়া সিটি। পাতায়া সংগীত উৎসব ২০২১, লয় ক্রাটং উৎসব, ফায়ার ওয়ার্ক, ফুড ফেস্টিভাল ’ডার্ন গিন থিন না কলু’ এবং পাতায়া কাউন্টডাউন সহ বিভিন্ন ইভেন্টের জন্য ৩০ মিলিয়ন বাত বিনিয়োগ করেছে শহরটি। সংবাদ সূত্র: A24 News Agency

এসব আয়োজনের মাধ্যমে পর্যটকদের আকর্ষণ করা এবং থাইল্যান্ডের সম্ভাবনা ও সুযোগ অবারিত করে সবার সামনে তুলে ধরাই পাতায়ার লক্ষ্য। 

পাশাপাশি পর্যটকদের জন্য নেয়া হয়েছে যথেষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থা। উৎসবের সার্বিক নিরাপত্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন জিরাওয়াত সুকোনথাসুপ।

তিনি জানান, ”আমার দ্বায়িত্ব হল পাতায়া সিটি ম্যানেজারের অফিসের অধীনে শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা বজায় রাখা। আমাকে পুলিশ, পর্যটন পুলিশ, স্বেচ্চাসেবক এবং অন্যান্য সংস্থার কাছ থেকে কনসার্টের স্থানের চারপাশে টহল, থাকার ব্যবস্থা এবং নিয়ন্ত্রণ করার জন্য জনবল সংগ্রহ করার দ্বায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। মিউজিক ফেস্টিভালের জন্য অনেক অ্যাটন্ডেী আছেন তাই নিরাপত্তার কোন সমস্যা হবে না।”

যদিও কিছু প্রবাসীর কাছে থাইল্যান্ডের ভাষা ও গান অপরিচিত যা থাই পর্যটনের জন্য একটি বাধা হিসেবে কাজ করে। উৎসবে আসা চনবারী প্রবাসী ও পর্যটক এনকা মার্টিনকা বলেন তার মুগ্ধতার কথা, ” আমরা প্রথমবারের মত ছুটিতে এসেছি এবং এখানে থাকছি। থাইল্যান্ড খুবই সুন্দর আমাদের পছন্দ হয়েছে। আমি মনে করি এ উদ্যোগটা ভালো কিন্তু আমি থাই ভাষা ও মিউজিক বুঝি না। এখানে সবাই খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ।”

বন্ধুর কাছ থেকে জেনেই এ উৎসবে আসতে আগ্রহী হয়েছেন বলে জানান তিনি, ”আমরা জমতিয়েনে থাকি এবং আমার বন্ধু সাগরতীরের এ উৎসব সম্পর্কে আমাকে বলেছে। এ ধরনের উৎসবে আমার প্রথম আসা। আমি খুব উপভোগ করছি কারণ আমি ছবি ও ভিডিও ছাড়া আগে এমন উৎসব দেখিনি।”

তবে ভ্রমণ সম্পর্কিত পেশায় নিয়োজিত কিছু লোক অভিযোগ করেছেন যে এখনও পর্যন্ত পাতায়ায় কোন বিদেশী পর্যটক আসছে না যদিও ইভেন্ট ইতিমধ্যে চার সপ্তাহে পৌঁছে গেছে।

x