পাইকগাছায় গাছ কাটা মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার; জামিনে মুক্ত

0 89

পাইকগাছা প্রতিনিধি: খুলনার পাইকগাছায় সরকারী গাছ কাটার অভিযোগে ৩ নং লতা ইউপি চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন মন্ডলের নামে মামলা হয়েছে। পুলিশ চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করেছে। বুধবার গভীর রাতে ওসি মোঃ এজাজ শফী চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করেন। আর সরকারী গাছ কাটার এ মামলাটি করেছেন দেলুটি ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা ( তহশীলদার) লতিফা আক্তার।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ১৬ ডিসেম্বর সকালে চেয়ারম্যানের নির্দেশে ধলাই গ্রামের উত্তম রায় নামে এক যুবক লতা ইউনিয়নে নব নির্মিত ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভিতর থেকে কয়েকটি গেওয়া ও খেজুরগাছ কেটে নিয়ে যায়। এরপর তহশিল অফিসের পিয়ন শরিফুলের মাধ্যমে জ্ঞাত হয়ে তহশীলদার লতিফা আক্তার মোবাইলে উত্তম রায় ও পরবর্তীতে চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন মন্ডলকে গাছ কাটার কারন সম্বন্ধে জানতে চাইলে তারা উল্টো হুমকি দেন।

এক পর্যায়ে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী সহকারী কমিশনার পর্যন্ত গড়ালে তারা ইউপি চেয়ারম্যানকে তহশীদারের সাথে কথা বলে সমাধানের নির্দেশনা দেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত গাছ ফেরৎ না দেওয়ায় ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা লতিফা আক্তার বাদী হয়ে ২৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন মন্ডল ও উত্তম রায়ের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। যার নাং-১৪। মামলার পর ওসি এজাজ শফি বুধবার গভীর রাতে ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করে পরদিন বৃহস্পিবার সকালে তাকে আদালতে প্রেরন করেন।

 

এদিকে চেয়ারম্যানের পক্ষে আনইজীবীরা আদালতে জামিন আবেদন করলে শুনানীন্তে বিজ্ঞ আদালত চেয়ারম্যান চিত্ত্বরঞ্জন মন্ডলের জামিন মঞ্জুর করেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.