পাবনার খামারী ফিরোজ ৩০ মন ওজনের বাদশা নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন

35
আটঘরিয়া প্রতিনিধি:  সাদা-কালো ডোরাকাটা ফিজিয়ান জাতের ষাঁড় গরু বাদশা। বিশাল দেহী গরুটির ওজন প্রায় ৩০ মণ। আসন্ন ঈদুল আযহায় এই গরুটি প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা বিক্রি হবে বলে আশা করছেন খামারী ফিরোজ শেখ।
পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের আড়িয়া গোহাইল বাড়ী  গ্রামের মৃত মাজাই শেখের ছেলে ফিরোজ শেখ।  ২০১৫ সালে শখের বসে শুরু করেন গরুর খামার। প্রথমে দুটি গরু দিয়ে শুরু করলেও বর্তমানে খামারে রয়েছে ১৫ টি গরু।
তবে এই ১৫ টি গরুর মধ্যে আলাদা ভাবে নজর কাড়ে বিশাল দেহী ফিজিয়ান জাতের গরু বাদশা।
এ বিষয়ে খামারী ফিরোজ শেখ বলেন, চার বছর আগে তার নিজের খামারে গাভী থেকে এইটি বাছুর হয়। অন্য গরুর চেয়ে আকর্ষণীয় বছুটিকে লালন পালনে নেয়া হয় বাড়তি যত্ন। ভালোবেশে গরুটির নাম রাখেন বাদশা।
গত বছর বিক্রির জন্য হাটে তোলা হলেও  করোনা কালিন সংকটে কাংক্ষিত দাম না পেয়ে হতাশ ফিরোজ গরুটিকে ফিরিয়ে আনেন নিজ বাড়িতে। আসন্ন ঈদুল আযহায় এই গরুটি প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা বিক্রি হবে বলে আশা করছেন খামারী ফিরোজ শেখ।
x