পুঠিয়ার উজালপুর স্কুলে সুধি সমাবেশ ও অভিভাবক সভা অনুষ্ঠিত! প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

0 167
পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহীর পুঠিয়ার উজালপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সুধি সমাবেশ ও অভিভাবক সভা অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে উজালপুর সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের এর আয়োজন করা হয়। কিন্তু এই অনুষ্ঠানের বিষয়ে জেনেও প্রধান শিক্ষক স্কুলে তালা লাগিয়ে চলে যায়। তারপরও স্কুলের সামনে অনুষ্ঠানটি করেন ম্যানেজিং কমিটি, স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মী ও অভিভাবকবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উজালপুর সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ আব্দুর রহিম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান, আওয়ামীলীগের নেতা রতন সরকার, জিউপাড়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি সদস্য জামাল উদ্দিন, ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি চাঁন, ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সোহেল রানা, ইউনিয়ন ছাত্র লীগের আহবায়ক পারভেজ রানা আরিফ, ম্যানেজিং কমিটির সহ-সভাপতি আবু সিদ্দিক, সদস্য শরিফা বেগম সহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

উজালপুর সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ আব্দুর রহিম জানান, আজকের সভায় প্রধান শিক্ষক উপস্থিত না থেকে স্কুল বন্ধ করে চলে যাওয়ায় তিব্র নিন্দা প্রকাশ করেন উপস্থিতরা। সেই সাথে স্কুলে কর্মরত প্রধান শিক্ষক মোঃ মনছুর রহমান এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে আলোচনা করা হয়। প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন। অনিয়মগুলো হল- পুরাতন তিনটি ঘরের সমস্ত ইট এবং অন্যান্য আসবারপত্র, বড় একটি নিমগাছ, স্কুলের নগত অর্থ ৯ হাজার ৮ শত টাকা আত্নসাৎ করেন। নতুন ঘর নির্মানের বালি, সিমেন্ট, ইটের খোয়া নিয়ে গিয়ে নিজের বাসায় গোয়াল ঘরে কাজে লাগান। তিনি নিয়মিত স্কুলে আসেন না। আর যদিও বা আসেন ১ ঘন্টা থেকে চলে যান। স্কুলের ১ শত ১০ জন শিক্ষার্থীর নিকট থেকে পোশাক তৈরি বাবদ টাকা তুলে আত্নসাৎ করেন। এছাড়া তিনি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মামুনুর রশিদের ক্লাস মেটের পরিচয়ে তিনি স্কুলের বিভিন্ন অপকর্ম করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মামুনুর রশিদ এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছে। আমাদের এমপি মহোদয় বিষয়টি শুনেছেন। আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.