পুঠিয়ায় প্রথম করোনা ভাইরাস রোগী সনাক্তে ৪৩ বাড়ি লকডাউন

301

মোহাম্মদ আলী, পুঠিয়া : রাজশাহীর পুঠিয়ায় প্রথম একজনের শরীরে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। এতে তার বাড়িসহ আশে পাশের ৪৩ টি বাড়ি ও প্রতিষ্টান লকডাউন করা হয়েছে। তবে আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়িতে বসবাস করা তার ভাই বোনসহ সকলকে একই বাড়িতে লকডাউন করে রাখা হয়েছে। রোববার (১২ এপ্রিল) আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে করোনা শনাক্তের পর সন্ধ্যায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ওলিউজ্জামান। তিনি আরও বলেন, আক্রান্ত ব্যাক্তিকে তার নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে । তার স্বাস্থ্যের অবস্থা বুঝে স্বাস্থ্য বিভাগ পরবর্তি ব্যবস্থা নিবে । তবে তিনি আগের চেয়ে এখন ভালো আছেন।

উল্লেখ্য, রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় প্রথম হায়দার আলীর ছেলে ইউসুব আলী (৩০) নামের একজনের শরীরে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠায় পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।
করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তি ঢাকার একটি গার্মেন্স প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। ৮/৯ দিন আগে শরীরে জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে গ্রামের বাড়ি পুঠিয়া উপজেলা জিউপাড়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের বগুড়াপাড়া গ্রামে আসেন।
পরে প্রশাসনের লোকজন খোঁজ পেয়ে তাকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখেন এবং তার শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠান।
রবিবার (১২ এপ্রিল) রাত ৭ টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার নাজমা আক্তার বলেন, জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে ভুগছিলেন এমন অবস্থায় রোগীর শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়। এরমধ্যে উপজেলার জিউপাড়া ইউনিয়নের একজনের করোনা ভাইরাস পজেটিভ এসেছে।
এ নিয়ে রাজশাহী জেলাতে এই প্রথম ১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত করা হয়েছে।

x