প্লটের আবেদন প্রত্যাহার চেয়েছেন রুমিন

0 38

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: নিয়ম অনুযায়ী একজন সংসদ সদস্য হিসেবে প্লট বরাদ্দ চেয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় বরাবর আবেদন করেছিলেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। এনিয়ে আলোচনা-সমালোচনার প্রেক্ষিতে তার সেই আবেদন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান।

শায়রুল বলেন, ‘ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এমপি প্লটের আবেদন প্রত্যাহার চেয়ে আজ আবারও গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী বরাবার আবেদন করেছেন। রুমিন ফারহানা তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রতি সম্মান জানিয়ে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিএনপির একজন কর্মী হিসেবে এটাকে আমি সাধুবাদ জানাই।’

‘প্লট আবেদন প্রত্যাহার’ শীর্ষক ওই আবেদনে রুমিন ফারহানা লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি-এর প্রাণ তৃণমূলের নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের অনুভূতির প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা জানিয়ে গত ৩ আগস্ট, ২০১৯ তারিখ সংসদের দাফতরিক ফরম্যাটে করা আমার পূর্বাচলের প্লটের আবেদনটি আমি প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো।’

প্রসঙ্গত, রাজধানীর পূর্বাচলে ১০ কাঠার একটি প্লট চেয়ে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বরাবর একটি আবেদনপত্র পাঠিয়েছেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। এ নিয়ে শুরু হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা।

তবে আবেদনপত্র কিভাবে প্রকাশ পেল এমন প্রশ্ন তুলে টেলিভিশন টকশোর পরিচিত মুখ বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক বলেন, ‘একজন এমপি রাষ্ট্রীয়ভাবে পাঁচ বছরের জন্য ন্যাম ভবনে একটি ফ্ল্যাট, একটা ট্যাক্স ফ্রি গাড়ি এবং রাজউকের একটা প্লট বরাদ্দ পান। আমিও জাতীয় সংসদের একজন এমপি। সে হিসাবে রাষ্ট্রের কাছে উল্লিখিত সুবিধা পাওয়ার অধিকার রাখি। সেজন্যই আমি রাষ্ট্রের কাছে প্লটের জন্য আবেদন করেছি। তবে এই আবেদন কিন্তু বর্তমান অনির্বাচিত সরকারের কাছে নয়।’

তিনি বলেন, ‘শুধু আমি নই, এই সংসদের আরও এমপিরাও আবেদন করেছেন। কিন্তু তাদের নাম তো প্রকাশ করা হয়নি। এটা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ছাড়া প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি। আমার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরও প্রকাশ করা হয়েছে। আমার নাম প্রকাশের একমাত্র কারণ হচ্ছে, আমি জাতীয় সংসদে সরকারের নেতিবাচক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে জোরালোভাবে বক্তব্য রাখি এবং আমি বিরোধী দলের এমপি।’

নাম যেহেতু প্রকাশ করা হয়েছে তাহলে আবেদনকারী অন্যান্য এমপিদের নামও প্রকাশের দাবি করেন আলোচিত এই সংসদ সদস্য।

Leave A Reply

Your email address will not be published.