ফ্রান্সে ২ মাস বাড়ল জরুরি অবস্থা

0 26

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: ধীরে ধীরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ যখন সব খুলে দেয়ার পরিকল্পনা করছে। তখন দেশজুড়ে জারি করা স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থার মেয়াদ আরও দুই মাস বাড়িয়েছে ফ্রান্স। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আগামী ২৪ জুলাই পর্যন্ত এই জরুরি অবস্থা জারি থাকবে। এ সময়ের মধ্যে কোনো ব্যক্তি ফ্রান্সে প্রবেশ করলে তাকে দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। খবর আল জাজিরা।

করোনা ভাইরাসে ইউরোপের অন্যতম ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ফ্রান্স। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৯৩, মারা গেছে ২৪ হাজার ৮৯৫ জন। করোনার বিস্তার রোধে দেশ জুড়ে জারি রয়েছে লকডাউন। এর আওতায় ব্যবসা বাণিজ্যের পাশাপাশি রেস্তোরাঁ, ক্যাফে, সিনেমা এবং নাইটক্লাব বন্ধ রয়েছে। ভ্রমণ বা চলাচলও সীমিত করা হয়েছে। এসব ব্যবস্থার মধ্যেও দেশটিতে বিপুল সংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়। কর্তৃপক্ষের ধারণা, জরুরি অবস্থা জারি করা না হলে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা হতো আরও কয়েকগুণ, যেমনটি দেখা গেছে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে।

যদিও অর্থনৈতিক অচলাবস্থা বিবেচনায় আগামী ১১ মে থেকে ধাপে ধাপে লকডাউন শিথিলের ঘোষণা দিয়েছে ফ্রান্স। স্কুলও খুলে দেওয়া হবে শিগগির। তবে রবিবার মন্ত্রিসভার এক বৈঠকের পর সরকার নির্দেশনায় জানিয়েছে, করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় গত ২৪ মার্চ থেকে ঘোষিত স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা এখনই তুলে নেওয়া হবে অবিবেচনাপ্রসূত এবং ঝুঁকিপূর্ণ।

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী অলিভিয়ের ভেরান বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ঘোষিত স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থার মেয়াদ আগামী ২৪ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

এদিকে স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থার মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা দিলেও এ সংক্রান্ত বিল দেশটির পার্লামেন্টের অনুমোদন প্রয়োজন হবে। সোমবার বিলটি পার্লামেন্টে উপস্থাপন এবং তা আইনে পরিণত করা হবে বলে জানান সরকারের মুখপাত্র সিবেথ এনডিয়াই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.