বন্ধু ও বিশ্বাসঘাতকদের চেহারা উন্মোচিত হবে ব্রাসেলসে : জেলেনস্কি

২৬৩
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। ছবি : রয়টার্স

ইউক্রেনের মিত্রদের যুদ্ধে হস্তক্ষেপ করা থেকে বিরত রাখতে রাশিয়া তার অর্থনৈতিক শক্তি প্রয়োগ করছে বলে অভিযোগ করেছেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এ ছাড়া ব্রাসেলসে ইউক্রেনের বন্ধু ও প্রতারকদের চেহারা উন্মোচিত হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে পশ্চিমা নেতাদের পৃথক তিনটি সম্মেলনের আগে বুধবার রাতে দেওয়া এক ভিডিওবার্তায় তিনি এই অভিযোগ করেন খবর বিবিসির।

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) ব্রাসেলসে জি-৭, সামরিক জোট ন্যাটো ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

এর আগে দেওয়া ওই ভিডিওবার্তায় প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, ‘আমরা জানি, রাশিয়া এরই মধ্যে তাদের স্বার্থের জন্য তদবির (লবিং) শুরু করেছে। এগুলো কেবলই যুদ্ধের স্বার্থ। আমরা এটিও জানি, তারা ইউক্রেনের কিছু অংশীদারের সঙ্গেও কাজ করছে।’

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘এই তিনটি সম্মেলনেই আমাদের দৃঢ় অবস্থান থাকবে। এই তিনটি সম্মেলনে আমরা দেখবো: কারা আমাদের বন্ধু, কারা আমাদের অংশীদার এবং কারা টাকার জন্য আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।’

বিবিসি বলছে, ইউরোপের জন্য প্রয়োজনীয় গাসের প্রায় ৪০ শতাংশ সরবরাহ করে থাকে রাশিয়া। আর তাই মস্কোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণে জ্বালানির বিকল্প উৎস খুঁজছেন ইউরোপীয় নেতারা।

এদিকে ভিডিও-লিংকের মাধ্যমে ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনে ভাষণ দেবেন প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি। সেখানে তিনি বিমান এবং বিমান বিধ্বংসী ব্যবস্থাসহ ইউক্রেনে আরও উন্নত অস্ত্র পাঠানোর আহ্বান জানাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

Comments are closed.