বাংলাদেশের মেয়েদের স্বপ্ন পূরণের উচ্ছ্বাস

1
বাংলাদেশ ও নেপাল ম্যাচ। ছবি : সংগৃহীত

দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান হলো, স্বপ্ন পূরণ হলো বাংলাদেশের। সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতল লাল-সবুজের দল। স্বাগতিক নেপালের মেয়েদের ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা জেতেন সাবিনা-কৃষ্ণারা।

আজ সোমবার কাঠমান্ডুর দশরথ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে ফাইনালে প্রথমার্ধেই দুই গোল আদায় করে নেয় বাংলাদেশ। আর দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে পায় তৃতীয় গোল। শামসুন্নাহার জুনিয়র একটি ও কৃষ্ণা রানী সরকার দুটি করে গোল করেন।

ম্যাচের আগে কাঠামান্ডুতে ভারি বৃষ্টি হয়। তাই মাঠ হয়ে যায় কর্দমাক্ত। বল নিয়ন্ত্রণে কিছুটা সমস্যা হলেও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে দুই দল। বাংলাদেশ সাফল্য পায় শুরুতেই।

প্রথম মিনিটে মারিয়া মান্ডার বক্সের বাইরে দারুণ শট নেপালের গোলরক্ষক রুখে না দিলে বিপদ হতে পারত। পরে স্বপ্নার শট কর্নারের বিনিময়ে আঞ্জিলা থুম্বাপো সুব্বো।

ম্যাচের ১৩ মিনিটে দারুণ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। সানজিদা খাতুন ও মনিকার পা ঘুরে বল পেয়ে শামসুন্নাহারের আলতো শটে জালে জড়ান বল।

এক গোল খেয়ে ম্যাচে ফেরার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে নেপাল। বেশ কয়েকটি সুযোগও পায় তারা। কিন্তু কাজে লাগাতে পারছিল না স্বাগিতক দলটি।

অথচ খেলার ধারার বিপরীতে ৪২ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ফেলে বাংলাদেশ।  নেপালের এক খেলোয়াড়ের ভুলে বল পেয়ে অধিনায়ক সাবিনার পাস থেকে কৃষ্ণা বল জালে পাঠাতে ভুল করেননি।

৭০ মিনিটে নেপাল একটি গোল করে ব্যবধান কিছুটা কমায়। বক্সের ভেতর বল পেয়ে অনিতা বাসনেত ডান পায়ের জোরালো শটে বাংলাদেশের জালে বল পাঠিয়ে ম্যাচের ফেরার কিছুটা আভাস দিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত পারেনি তারা।

অথচ ৭৭ মিনিটে আরও একটি গোল খেয়ে বসে নেপাল। মনিকা চাকমার পাস থেকে আগুয়ান গোলকিপারের পাশ দিয়ে বল জালে জাড়ান কৃষ্ণা। এটি তাঁর ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ও দলের পক্ষে তৃতীয় গোল করেন।

অবশ্য দুই দলই এর আগে সাফে শিরোপার স্বাদ পায়নি। এবার সেমিফাইনালে ৮-০ গোলে ভুটানকে বিধ্বস্ত করে বাংলাদেশ।

সাফে এর আগে তিনবার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও নেপাল। দুইবার সেমিফাইনালে এবং একবার গ্রুপ পর্বে। তিনবারই হারেছিল বাংলাদেশ। এবার আর পারেনি নেপাল। নিজেদের মাঠেই সাবিনাদের কাছে হারে।

x