বানেশ্বরে বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ দোকানদাররা

93

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি : রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে কুকুরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ বাজারের ব্যাবসায়ীরা। রাস্তা-ঘাটে বিভিন্ন মার্কেটে সবখানেই বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ বানেশ্বরবাসি। এক সাথে ১০ থেকে ১৫ টি কুকুর দল বেধে রাস্তায় চলাচল করছে। মানুষ দেখলেই তাদের দিকে তাকিয়ে থাকছে মনে হচ্ছে কামড় দেবে । উপায় না পেয়ে লোকজন ছুটাছুটি করতে দেখা যাচ্ছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, বানেশ্বর বাজারের সবখানেই কম বেশি তবে বানেশ্বর মসজিদ মার্কেটে উপদ্রব সবচেয়ে বেশি দেখা যায় কুকুরের দল। এসব বেওয়ারিশ কুকুরগুলো দল বেধে চলার কারণে কেউ সাহস করে এসব কুকুর তাড়াতে যায় না। শুধু রাস্তায় নয় বানেশ্বর বাজারের বিভিন্ন মার্কেট এলাকায় দল বেধে চলে এসব কুকুরের দল। এসব বেওয়ারিশ কুকুর মানুষ দেখলে তেড়ে আসে। এবং বানেশ্বর বাজারে হাট বাজার করতে আসা লোকদের বাজার ব্যাগ দেখলে তাদের আক্রমন করে।
এসব কুকুর অবাধে রাস্তায় চলাচলের জন্য মানুষ যেমন আতংকে রাস্তা চলাচল করেন, তেমনি ঘটে দুর্ঘটনা। পুঠিয়া উপজেলায় কুকুর নিধন কার্যক্রম চালানো হয় না। তাই এতোটাই কুকুরের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে যে রাস্তা-ঘাটে চলা দায় হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে রাতের বেলায় কুকুরের চিৎকারে অতিষ্ঠ থাকে মানুষ।
বানেশ্বর মসজিদ মার্কেটের ব্যাবসায়ী মোঃ আলম জানান, প্রূূতিদিন আমাদের এই মার্কেটে কুকুরের যে পরিমান আমদানি হয়। এতে করে আমাদের কাষ্টমার ও জনসাধারণ এখানে আসতে ভয়পায়। আমরা এখানে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত থাকি বেওয়ারিশ কুকুর প্রায় ১০/১৫ টা সব সময় দেখা যায়।
মসজিদ মার্কেটের আরেক ব্যাবসায়ী আমীরউল জানান, এই এলাকায় প্রূায় ১৫ থেকে ২০টি কুকুর রয়েছে। যারা সারাদিন রাত রাস্তায় দাপটের সাথে চলাফেরা করে। প্রূতিদিন কেউ না কেউ এসব বেওয়ারিশ কুকুরের হামলার শিকার হয়।
তিনি আরও বলেন, আমাদের উপজেলায় কুকুর নিধন না হওয়ায় কুকুরের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে অস্বাভাবিক ভাবে। তবে বিকল্প কোনো উপায়ে কুকুর প্রজনন রোধ করে তার সংখ্যা কমানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা দরকার।

x