বাড়ি থেকে অনলাইনে বিশেষায়িত স্বাস্থ্যসেবা পাবেন গ্রামবাসী : প্রধানমন্ত্রী

৩৫৪
সোমবার রাজধানীর মহাখালীতে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস)-এর সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপন ও ১৪তম সমাবর্তনের উদ্‌বোধন অনুষ্ঠানে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : ফোকাস বাংলা

গ্রামীণ মানুষজন যেন ঘরে বসে চিকিৎসা পায়, সেজন্য সরকার উপজেলাগুলোতে অনলাইন-বিশেষায়িত স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সুযোগ তৈরি করছি, যেন তারা (রোগীরা) তাদের নিজ অবস্থান ও উপজেলায় থেকে বিশেষায়িত চিকিৎসা পেতে পারে।’

আজ সোমবার রাজধানীর মহাখালীতে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস)-এর সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপন ও ১৪তম সমাবর্তনের উদ্‌বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এ অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকার প্রতিটি উপজেলা হাসপাতালে ওয়েব ক্যামেরা স্থাপন করেছে। ‘আমরা এটিকে (ওয়েব ক্যামেরার মাধ্যমে অনলাইন পরিষেবা) আরও উন্নত করব। আমরা এ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি, যেন তারা (রোগীরা) অনলাইনে বিশেষায়িত চিকিৎসা নিতে পারে।’

শেখ হাসিনা বলেন, যদিও সরকার এরই মধ্যে এ সুবিধা তৈরি করেছে, এটি আরও উন্নত করার পরিকল্পনা রয়েছে, যাতে রোগীদের ঢাকায় আসতে না হয়। বরং তারা নিজ এলাকায় অবস্থান করে বিশেষায়িত স্বাস্থ্যসেবা নিতে পারে।

বিসিপিএসের সভাপতি অধ্যাপক কাজী দ্বীন মোহাম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে বিসিপিএস প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সুবর্ণজয়ন্তী স্মারক ও সম্মানসূচক ফেলোশিপ প্রদান করে। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিপিসিএস সভাপতির কাছ থেকে স্মারক ও ফেলোশিপ সনদ গ্রহণ করেন।

বিসিপিএসের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক এ এইচ এম তৌহিদুল আনোয়ার চৌধুরী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন এবং প্রতিষ্ঠানটির জ্যৈষ্ঠ সহ-সভাপতি অধ্যাপক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম ধন্যবাদ জানান।

বিসিপিএসের অনারারি সেক্রেটারি অধ্যাপক মো. বিল্লাল আলম ভারত, পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশের বিদেশি প্রতিনিধিদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিসিপিএস ফেলোদের হাতে স্বর্ণপদক এবং দেশি-বিদেশি বিশিষ্টজনের কাছে সম্মানসূচক ফেলোশিপ তুলে দেন।

Comments are closed.