বিদেশে আম রপ্তানি করে স্বাবলম্বী হওয়ার লক্ষ্যে কাজ করতে হবে- প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী 

১৩৮

স্টাফ রিপোর্টার : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেছেন, বাংলাদেশ ঋতুবৈচিত্র্যের দেশ। এখানে ভিন্ন ঋতুতে ভিন্ন ভিন্ন ফল উৎপাদন হয়। আম একটি অর্থনৈতিক ফল। এটি অর্থনীতির বড় উৎস। আম বিদেশে রপ্তানি করে যাতে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া যায়, সেজন্য আমাদের কাজ করতে হবে। বিশ্ব দরবারে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমের চাহিদা রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার কানসাটে বঙ্গবন্ধু লাইভ ম্যাংগো মিউজিয়ামে আম উৎসব-২০২২ উপলক্ষ্যে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ও শিবগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন এ মেলার আয়োজন করে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমের কদর বাড়াতে বিদেশি পর্যটকদের আপ্যায়নের মাধ্যমে আকৃষ্ট করতে হবে। আমি জানি চাঁপাইনবাবগঞ্জের মানুষ না খেয়ে অতিথিদের আতিথেয়তায় মনোমুগ্ধকর আপ্যায়নের ব্যবস্থা করতে পারে। ম্যাংগো ট্যুরিজম ব্যক্তিগতভাবে হয়,প্রাতিষ্ঠানিকভাবে এর তেমন সুযোগ হয় না। যদি হত তাহলে আম অর্থনৈতিকভাবে সফলতা লাভ করত।

মাহবুব আলী বলেন, আমাদের সরকার প্রধান বিদেশে সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানদের কাছে আম পাঠায়, যাতে আমের কদর বাড়ে এবং আমের বাজার চাঙ্গা হয়। আমের কদর বাড়াতে বিশ^বাসীর কাছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুস্বাদু আম তুলে ধরতে হবে। তিনি বলেন, আমরা ইতিমধ্যেই চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত স্পেশাল ম্যাংগো ট্রেন চালু করেছি, যাতে চাষিরা খুব কম সময়ে স্বল্প খরচে ঢাকায় আম পাঠাতে পারে। যাতে আরও স্বল্প সময়ে আম ঢাকায় পাঠানো সম্ভব হয়, তাই আগামী বছর দুইটি কার্গো বিমান যুক্ত করা হবে এবং এ ব্যাপারে সরকার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বলে তিনি জানান ।

আলোচনাসভায় প্রতিমন্ত্রী সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে বলেন, সরকার দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করতে সক্ষম হয়েছে। অবাধ তথ্য প্রবাহের যুগে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠা করেছে। করোনার মধ্যেও সরকার গৃহহীনদের আবাসনের ব্যবস্থা করেছে। জানুয়ারির পহেলা তারিখে ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে বই তুলে দিতে সক্ষম হয়েছে। স্কুল-কলেজ পাঁকাকরণ করা হয়েছে।

জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করেছে। পদ্মাসেতু সেতু করেছে। যে পদ্মাসেতু আমাদের অহংকার। আগামী ২৫ জুন ঐতিহাসিক পদ্মাসেতু উদ্বোধনের মাধ্যমে ঐ অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘ দিনের আশা-আকাক্সক্ষার প্রতিফলন ঘটবে। এ সময় প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান। আলোচনাসভায় শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবুল হায়াত স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিফ খাঁনের সভাপতিত্বে সভায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য সামিল উদ্দিন আহমেদ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন, বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান মো. আলি কদর, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জি এম এস জাফরউল্লাহ্ (এনডিসি), বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত. সচিব) আবু তাহের মোহাম্মদ জাবের, পুলিশ সুপার এএইচএম আবদুর রকিবসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে আম উৎসব উপলক্ষ্যে প্রতিমন্ত্রীর অংশগ্রহণে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে মুক্তিযোদ্ধাসহ সর্বস্তরের জনগণ অংশগ্রহণ করেন। দুপুরে প্রতিমন্ত্রী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার মহানন্দায় শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন এলাকায় পর্যটন কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন। বিকেলে প্রতিমন্ত্রী শাহ মখদুম বিমান বন্দর পরিদর্শন করেন।

Comments are closed.