বিভিন্ন সেবা নিয়ে ফের মাঠে নামছে জামিল ব্রিগেড

3

রাজশাহী প্রতিনিধি: করোনা সংক্রমন বেড়ে যাওয়ায় বিনামূল্যে অক্সিজেন-অ্যাম্বুলেন্স সরবরাহসহ ডাক্তারি পরামর্শের মতো বিভিন্ন সেবা নিয়ে আবারও মাঠে নামছে রাজশাহীতে স্বেচ্ছায় সেবাদানকারী সংগঠন শহিদ জামিল ব্রিগেড। শনিবার (১৫ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলন করে এই তথ্য জানিয়েছেন জামিল ব্রিগেডের সদস্যরা। মহানগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে ওয়ার্কার্স পার্টির দলীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন শহিদ জামিল ব্রিগেডের প্রধান উপদেষ্টা ও ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জামিল ব্রিগেডর প্রধান সমন্বয়ক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু।

লিখিত বক্তব্যে দেবু বলেন, জামিল ব্রিগেড মানুষের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে আজ পর্যন্ত ২২৩ দিন ধরে সক্রিয় আছে। ব্রিগেডের উদ্যোগে ৩টি অ্যাম্বুলেন্স, অক্সিজেন, ডাক্তারী পরামর্শ, মাস্ক বিতরণ, খাদ্য ও ঔষুধ সরবরাহ, টিকা রেজিস্ট্রেশনসহ বিভিন্ন সেবা বিনামূল্যে নিশ্চিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আবারও আমরা পুরো নগরীতে লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করবো। আমাদের ডাক্তারি পরিষেবা সবসময় চালু থাকবে। প্রয়োজনে আমরা অক্সিজেন সেবা বৃদ্ধি করবো; যদিও এই ভ্যারিয়েন্টে অক্সিজেন খুব একটা প্রয়োজন হচ্ছে না। আমাদের মেডিকেল টিমও সক্রিয় থাকবে। টিকাগ্রহণে মানুষকে উৎসাহিত করাসহ বুস্টার ডোজ গ্রহণে যাতে কেউ বাদ না পরে সে বিষয়েও আমাদের সদস্যরা খেয়াল রাখবে।

অনলাইনে যুক্ত হয়ে জামিল ব্রিগেডের প্রধান উপদেষ্টা ও রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, জামিল ব্রিগেডের সাহসী তরুণদের আমি ধন্যবাদ জানাই। যারা যেকোন পরিস্থিতি মোকাবিলা করে মানু্ষরে পাশে দাঁড়াতে সবসময় প্রস্তুত। রাজনীতির মূল অর্থই হচ্ছে মানুষের বিপদে তাদের পাশে দাঁড়ানো। আমরা সেই দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে রাজনীতি করাটাই অর্থহীন। এই মুহুর্তে জামিল ব্রিগেডের এমন উদ্যোগ জনস্বার্থ বিবেচনায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ওয়ার্কার্স পার্টির এই সাধারণ সম্পাদক বলেন, ওমিক্রন বিপদজনক নাকি বিপদজনক নয়; এখনই বলা যাচ্ছে না। কিন্তু একটি কথা বলতে পারি, যারা গরীব মানুষ; দিন এনে দিন খায় তাদের জন্য নিশ্চয়ই ওমিক্রন বিপদজনক। কারণ যারা সবসময় বাইরে থাকে, কর্মসংস্থানে গিয়ে মানুষের সাথে মেশে; ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি তাদেরই বেশি। মনে করি, সরকারের উচিত এই সময়ে গরীব মানুষের সব ধরনের স্বার্থ বিবেচনায় নেওয়া।

এমপি বাদশা রাজশাহীর মানুষকে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, জামিল ব্রিগেড সাধারণ মানুষের মাঝে করোনা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে বাড়িতে-বাড়িতে প্রচারাভিযান চালাবে। রাজশাহীসহ দেশের যেকোন সংকট বা মহামারীতে রাজনৈতিক আদর্শের জায়গায় থেকে শহিদ জামিল ব্রিগেড সবসময় মানুষের সাথে থাকতে বদ্ধপরিকর।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জামিল ব্রিগেডের রাজশাহী জেলার সমন্বয়কারী অধ্যাপক আশরাফুর হক তোতা, ব্রিগেডের মনিটরিং সেলের সদস্য আব্দুল মতিন, সিরাজুর রহমান খান, মনিরউদ্দীন পান্না, নাজমুল করিম অপু, মতিউর রহমান মতি, জেলার সদস্য কামরুল হাসান সুমন প্রমুখ।

x