ভারতে করোনার সংক্রমণ বেড়েছে, এক দিনে আক্রান্ত ৩৪৫১

35
ভারতে ফের উদ্‌বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়ে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি। ছবি : রয়টার্স

ভারতে ফের উদ্‌বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি। আজ রোববার সরকারের দেওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তিন হাজার ৪৫১ জন, মারা গেছেন ৪০ জন। মৃতদের মধ্যে ৩৫ জনই কেরালা রাজ্যের বাসিন্দা।

এদিকে, ভারতে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্ত হয়েছেন চার কোটি ৩১ লাখ দুই হাজার ১৯৪ জন। এ ছাড়া মোট মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখ ২৪ হাজার ৬৪ জন।

রাজধানী দিল্লিতেও করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গতকালের চেয়ে ৯ শতাংশ বেড়েছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। রাজধানী ছাড়াও ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বাড়ছে আক্রান্ত। চার হাজারের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছে দেশটির দৈনিক করোনা সংক্রমণ। কেরালা রাজ্যে হঠাৎ করে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে উদ্‌বেগ বাড়ছে। করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা হঠাৎ করে ভারতের সব রাজ্যে বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

পশ্চিমবঙ্গেও করোনার সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। মহারাষ্ট্রে তুলনামূলক করোনার সংক্রমণ বেড়েছে। মহারাষ্ট্রে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৫৩ জন। উত্তরপ্রদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২০৫ জন। রাজধানী দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৪০৭ জন। রাজধানী দিল্লির করোনা সংক্রমণ নিয়ে বিশেষ করে উদ্‌বেগ বাড়ছে।

অন্যদিকে, করোনায় কেরালা রাজ্যে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে করোনার টিকাকরণে জোর দেওয়া হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশবাসীকে করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে শিশুদের টিকাকরণ সুনিশ্চিত করার জন্য রাজ্যগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন। ভারতের একাধিক রাজ্যে নতুন করে করোনা বিধি কড়া করা হয়েছে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্‌বেগ বাড়িয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাটে করোনার সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। সেন্টিনাল সার্ভেতে দেখা গেছে, বসিরহাটে ১.০৬ শতাংশ বেড়েছে করোনার সংক্রমণ।

x