ভারতে বাস ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ১৭, আহত ২৬

১৩৩

ভারতের ঝাড়খন্ড রাজ্যে বাস ও ট্রাকের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ১৭ জন নিহতের ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২৬ জন। আহতদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। গত বুধবার যাত্রীবাহী একটি বাসের সঙ্গে গ্যাস সিলিন্ডার বহনকারী একটি ট্রাকের সংঘর্ষ হয়। গোবিন্দপুর-সাহিবগঞ্জ হাইওয়েতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এই দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক টুইট বার্তায় হতাহতের পরিবারের প্রতি শোক এবং সমবেদনা জানিয়েছেন। একই সঙ্গে আহতদের সুস্থতা কামনা করেছেন।

জানা গেছে, সাহিবগঞ্জের বারহারওয়া থেকে দেওঘর জেলার জাসিদিহ এলাকায় যাচ্ছিল যাত্রীবাহী বাসটি। দুর্ঘটনার সময় বাসটিতে প্রায় ৪০ জন যাত্রী  ছিলেন।

দুর্ঘটনার পর বাসটিতে আটকে পড়া বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, ঘন কুয়াশার কারণে হয়তো ওই দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।  জানা যায়, গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে আসছিল ট্রাক। তার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে  বাসের।

সাহিবগঞ্জের বারহারওয়া থেকে দেওঘরের যোশিডি যাচ্ছিল বাসটি। সওয়ার ছিলেন ৪০ জন। দুর্ঘটনার ফলে, বাসটি একেবারে দুমড়ে মুচড়ে যায়। বেশির ভাগ যাত্রীই আটকে পড়েন ভিতরে। গ্যাস কাটার দিয়ে বাস কেটে বের করতে হয় আটকে পড়া যাত্রীদের। তবে ট্রাকে থাকা সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়নি। হলে আরও বিপত্তি ঘটত। পুলিশ জানিয়েছে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। আহতদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক টুইট বার্তায় নিহতদের পরিবার প্রতি ২ লাখ রুপি এবং আহতদের পরিবার প্রতি ৫০ হাজার রুপি সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি হতাহতের পরিবারের প্রতি শোক এবং সমবেদনা জানিয়েছেন। একই সঙ্গে আহতদের সুস্থতা কামনা করেছেন।

Comments are closed.