মালদ্বীপে প্রেসিডেন্টের ওপর ব্ল্যাক ম্যাজিকের অভিযোগে প্রতিমন্ত্রী গ্রেপ্তার

0 ১০৯
মালদ্বীপের রাজধানী মালের সমুদ্র সৈকত দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন একজন নারী। ছবি : এএফপি

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের ওপর ব্ল্যাক ম্যাজিক প্রয়োগ করার অভিযোগে দেশটির পরিবেশ প্রতিমন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভারত মহাসাগরের দ্বীপ দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা আজ বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর এএফপির।

পুলিশ জানিয়েছে, গত রোববার (২৩ জুন) দেশটির পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী ফাতিমাথ শামনাজ আলি সালিমকে আরও দুজনের সঙ্গে রাজধানী মালে থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, পরিবেশ প্রতিমন্ত্রীকে তদন্তের স্বার্থে এক সপ্তাহের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। তবে তার গ্রেপ্তারের বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

স্থানীয় গণমাধ্যম দ্য সান জানায়, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মোহামেদ মুইজ্জুর ওপর ব্ল্যাক ম্যাজিক প্রয়োগ করার অভিযোগে প্রতিমন্ত্রী শামনাজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশটির পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেনি, তবে তা অস্বীকারও করেনি।

যাদুবিদ্যা মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ মালদ্বীপের আইনে কোনো ফৌজদারী অপরাধ হিসেবে গণ্য হয় না। তবে, ইসলামি আইন অনুসারে ছয় মাসের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। দ্বীপমালার দেশটির বাসিন্দারা অনেক ঐতিহ্যবাহী রীতির চর্চা করে থাকেন। তারা বিশ্বাস করেন, বিরোধীদের মন জয় করা বা অভিশাপ দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে তাদের।

মালদ্বীপে ২০২৩ সালের এপ্রিলে ৬২ বছর বয়সী এক নারীকে তার তিন প্রতিবেশী ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি ব্ল্যাক ম্যাজিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করতেন। দেশটির সংবাদমাধ্যম মিহারু গত সপ্তাহে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তবে পুলিশের দীর্ঘ তদন্তে ওই নারীর বিরুদ্ধে যাদুবিদ্যা প্রয়োগের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

২০১২ সালে পুলিশ কর্মকর্তাদের ওপর ‘অভিশপ্ত মোরগ’ ছুড়ে দেওয়ার কারণে বিরোধী দলের একটি সমাবেশ ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার ঘটনাও ঘটে দেশটিতে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.