মাস্ক জীবাণুমুক্ত করবেন যেভাবে

0 408

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্ক ব্যবহার করা অত্যন্ত জরুরি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কিংবা হাত স্যানিটাইজার দিয়ে বারবার পরিষ্কার করার পরেও বাতাসের মাধ্যমে এটি শরীরে প্রবেশ করতে পারে। তাই মাস্ক পরার বিকল্প নেই। সার্জিক্যাল মাস্ক ৯০% পর্যন্ত জীবাণুমুক্ত। তবে প্রতিবার এই মাস্ক ব্যবহার করা ব্যয়বহুল। তাই একবার মাস্ক কিনে সেটাই ব্যবহার করতে হয় অনেককে। তবে মাস্ক ব্যবহারের পর অবশ্যই পরিষ্কার করতে হবে। অপরিষ্কার মাস্ক পরলে আক্রান্ত হতে পারেন করোনাসহ বিভিন্ন রোগে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) মাস্ক পরার নির্দেশ দিয়েছে। আর ব্যবহার করা মাস্ক জীবাণুমুক্ত করতে পরামর্শ দিয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কিছু পরামর্শ দিয়েছে মাস্ক জীবাণুমুক্ত করতে। তাহলে জেনে নেয়া যাক, যেভাবে জীবাণুমুক্ত করবেন মাস্ক।

৥ বাইরে থেকে ফিরে দড়ি, ফিতে বা রাবার ব্যান্ডের অংশ ধরে মাস্ক খুলতে হবে। সরাসরি মাস্কে হাত দেয়া যাবে না। সাবান পানিতে ভিজিয়ে ধুয়ে নিন। রোদে শুকাতে দিন, তাতে মাস্ক জীবাণুমুক্ত হবে।

৥ গরম পানি ও লবণ দিয়ে মাস্ক ফুটিয়ে নিতে পারেন। এর পর রোদে শুকাতে দিন। শুকিয়ে যাওয়ার পর ইস্ত্রি করুন। তবে কোন ভাবেই ভেজা মাস্ক পরবেন না। এতে সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে।

৥  ধুতে না চাইলে সার্জিক্যাল মাস্ক ব্যবহার করুন। এই মাস্ক একবার ব্যবহারের পর ফেলে দিতে হয়। তবে বাইরে গেলে দুটি মাস্ক ব্যাগে রাখুন। মুখে বাঁধা মাস্ক কোনো কারণে নষ্ট হলে বা ভিজে গেলে অন্যটি ব্যবহার করুন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x