মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে অভিযান অব্যাহত ফুলবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের

0 126

প্লাবন শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতকরণে অভিযান অব্যাহত রেখেছেন দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা প্রশাসন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক ব্যবহারে সচেতনামূলক প্রচার-প্রচারণা অব্যাহত রাখাসহ গত বুধবার থেকে করা হচ্ছে জরিমানা। তবুও বাড়ছে না সচেতনতার হার। প্রশাসনের গাড়ী দেখলেই মাস্ক পরছেন সবাই, গাড়ী চলে গেলেই মুখ থেকে নেমে যাচ্ছে পকেটে কিংবা হাতে চলে আসছে মাস্ক।

সরেজমিনে ফুলবাড়ী পৌরশহর ঘুরে দেখা গেছে, বেশির ভাগ মানুষের মুখে আবার যাদের মুখে আছে তারাও সঠিকভাবে ব্যবহার করছেন না মাস্কটি। কারো আছে থুথনিতে, কারো জামা কিংবা প্যান্টের পকেটে আবার কারো কারো হাতে। এখাবেই মাস্ক নিয়ে শুরু হয়েছে অবহেলার খেলা। প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক বাধ্যতামূলক পরতে করা হচ্ছে সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা। শহরের মোড়ে মোড়ে চালানো হচ্ছে অভিযান। তবুও যেনো কোথাও কমতি থেকেই যাচ্ছে! হয়তো মানুষের অসচেতনতার নয়তো আইনটি সহনশীল হওয়ায়।

আরো দেখা গেছে, দুর থেকে প্রশাসনের গাড়ি দেখেই সড়ক পরিবর্তন করে অন্যপথে যাওয়া। কেউ কেউ হাতে রাখছেন মাস্ক। প্রশাসনকে দেখলেই মুখে লাগিয়ে নিচ্ছেন। প্রশাসনকে অতিক্রম করলেই মুখের মাস্ক চলে আসছে রীতিমতো হাতেই। ব্যবসায়ীদেরকেও জরিমানা করে আসছে না সুফল। তারাও খেলছেন প্রশাসনের সাথে লুকোচুরি খেলা। বেশিরভাই দোকানীই পরছেন না মাস্ক।

গত বুধবার থেকে গতকাল শুক্রবার সরকারের স্বাস্থ্যবিধি না মেনে মাস্ক না পরায় দিবারাত্রী রীতিমতো অভিযান পরিচালনা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিয়াজ উদ্দিন এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কানিজ আফরোজ। গত বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার এই দুইদিনে অভিযান চালিয়ে ৪২ জন ব্যবসায়ী ও জনগণকে ৮ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা করেছে প্রশাসন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সচেতন নাগরিক বলেন, যারাই প্রশাসনের সাথে লুকোচুরি খেলা করছেন তাদের কারণেই আগামীতে আমরা সকলে হুমকির মুখে পড়ব। করোনার দ্বিতীয় ধাপ শুরু হয়েছে। সকলকে সচেতন হওয়া জরুরী। মাস্ক ছাড়া ক্রয়-বিক্রয়সহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সেবাপ্রদান বন্ধ করা উচিত। আমরা মনে করি প্রশাসনকে আরো কঠোর হওয়া উচিত। এখন থেকেই প্রশাসনের ভূমিকা কঠোর না হলে আগামীতে হুমকিতে পড়তে হবে আমাদেরকে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কানিজ আফরোজ বলেন, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সকলকে মাস্ক বাধ্যতামূলক পরতে হবে। মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে গত বুধবার থেকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। প্রাথমিকভাবে সহনশীল জমিমানার মাধ্যমে সচেতনতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। আগামীতে কঠোরভাবে অভিযান চালানো হবে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিয়াজ উদ্দিন বলেন, প্রশাসনকে দেখলেই সকলে মুখে মাস্ক লাগাচ্ছেন। অন্যসময়ে মাস্ক খুলে রাখছেন। মানুষকে সচেতন করতে বিভিন্নভাবে কাজ করছে প্রশাসন। প্রশাসনের পাশাপাশি সকলকে সম্মিলিতভাবে মানুষকে সচেতন করতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.