মিয়ানমারে একদিনে শতাধিক নিহতের ঘটনায় ‘হতবাক’ ওয়াশিংটন

0 104

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভের সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী দিন ছিল গতকাল শনিবার। এদিন ১০০ জনের বেশি বিক্ষোভকারী নিহত হয়। শনিবারের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে এ কথা জানানো হয়।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেছেন, “মিয়ানমারে শনিবারের হত্যার ঘটনায় ‘হতবাক’ ওয়াশিংটন। শতাধিক সাধারণ মানুষের জীবন কেড়ে নিয়ে কতিপয়ের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করছে জান্তা সরকার। মিয়ানমারের লোকজন সামরিক সরকার মেনে নেয়নি।’

ইয়াঙ্গুন ও মান্দালয়সহ মিয়ানমারজুড়ে গতকাল শনিবার অন্তত ৯১ জন বিক্ষোভকারী নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছিল স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস (এএপিপি)। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে ১০০ জনেরও বেশি নিহতের কথা বলা হয়।

 

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী গত ১ ফেব্রুয়ারি দেশটির বেসামরিক নেত্রী অং সান সুচিকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে বন্দি করে। এরপর থেকে সেখানে চলছে জান্তাবিরোধী রক্তক্ষয়ী প্রতিবাদ-বিক্ষোভ। জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে মিয়ানমারে এ পর্যন্ত ৩০০ জনের বেশি আন্দোলনকারীকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

এর মধ্যে ৯০ শতাংশ গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন এবং তাঁদের এক-চতুর্থাংশের মাথায় গুলি করা হয়েছিল। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এসব তথ্য জানিয়েছে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x