মুজিব : ভিএফএক্সে নতুন কোম্পানি, সম্ভাব্য মুক্তি ১৬ ডিসেম্বর

2

চলতি বছরের শেষের দিকে মুক্তি পাবে বহুল আলোচিত বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর ‘মুজিব’ সিনেমা।

পরিচালক শ্যাম বেনেগাল বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সিনেমাটির চূড়ান্ত সংস্করণ দেখাবেন, তারপর মুক্তির আনুষ্ঠানিক তারিখ ঘোষণা করা হবে। এমনটি জানানো হয়েছিল ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে।

এবার সিনেমাটির সহকারী পরিচালক ও কাস্টিং ডিরেক্টর বাহাউদ্দিন খেলন জানালেন, ১৬ ডিসেম্বর সিনেমাটি মুক্তির প্রাথমিক লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন তাঁরা।

গণমাধ্যমকে বাহাউদ্দিন খেলন জানিয়েছেন, ‘এই মাসে পোস্ট প্রডাকশনের সব কাজ শেষ হলে আগামী মাসে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ছবিটি দেখানোর ব্যবস্থা করা হবে। তিনি ছবিটি দেখে যদি কোনও সংশোধন না দেন, তাহলে আমাদের ইচ্ছা রয়েছে ১৬ ডিসেম্বর ছবিটি মুক্তি দেওয়ার। অবশ্য সেটাও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি সাপেক্ষে।’

সিনেমাটির ট্রেইলার প্রকাশের পর সমালোচনা প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের কাছে মনে হয়েছে ছবির মূল দুর্বলতা ভিএফএক্স। প্রথম যে প্রতিষ্ঠানটি ভিএফএক্স করেছিল, মাঝখানে বন্যার পানিতে তাদের সার্ভারে সমস্যা দেখা দেয়। আমরা চেয়েছি যে করেই হোক এই মাসের মধ্যে সব কাজ সম্পন্ন করতে। তাই মুম্বাইয়ের আরেকটি বড় ভিএফএক্স কোম্পানিকে যুক্ত করেছি। আগের ভিএফএক্স কোম্পানির সঙ্গে তারা কাজ করছে।’

এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘মুজিব’ সিনেমার অফিশিয়াল টিজার পোস্টার প্রকাশ করা হয়। পোস্টারে ১৯৭১ সালের ৭ মার্চে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেওয়া বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের মুহূর্তটিই তুলে ধরা হয়েছে। জনতার উদ্দেশে বঙ্গবন্ধুর হাত নাড়ার দৃশ্যটিই পোস্টারে রাখা হয়েছে। যদিও দেখানো হয়নি কারও লুক। ট্যাগ লাইনে লেখা, ‘একটি জাতির রূপকার’। কান চলচ্চিত্র উৎসবে মুক্তি পায় সিনেমাটির ট্রেইলার।

‘মুজিব’ সিনেমায় বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ, শেখ হাসিনার একটি চরিত্রে চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া ও বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী শেখ ফজিলাতুন্নেছার বড়বেলার চরিত্রে অভিনয় করছেন নুসরাত ইমরোজ তিশাসহ শতাধিক অভিনেতা কাজ করছেন সিনেমাটিতে।

২০২১ সালের জানুয়ারির শেষ দিকে মুম্বাইয়ের দাদা সাহেব ফালকে স্টুডিওতে সিনেমাটির প্রথম ধাপের শুট শুরু হয়। সিনেমাটিতে সহযোগী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন দয়াল নিহালানি। চিত্রনাট্য লিখেছেন অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদি। শিল্প নির্দেশনার দায়িত্বে রয়েছেন নীতিশ রায়। কস্টিউম ডিরেক্টর হিসেবে আছেন শ্যাম বেনেগালের মেয়ে পিয়া বেনেগাল।

x