মূর্তির ভিতরে ১২০০ বছর ধরে পদ্মাসনে রয়েছেন সন্ন্যাসী

0 733

monkআন্তর্জাতিক ডেস্ক : দুনিয়া রহস্যে মোড়৷ যার অনেক কিছুই অজানা৷ যেমন হাজার বছরের পুরনো একটা মমি৷ এমন কিছু রয়েছে তার মধ্যে যা দেখে চমকে গিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা৷
চিন, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনামে বিভিন্ন সময়ে তৈরি হওয়া গৌতম বুদ্ধের এমন কিছু মূর্তি রয়েছে যা রীতিমতো রহস্যজনক বস্তু৷  সোনা ও মূল্যবান পাথরে মোড়া থাকে এইসব মূর্তি৷ সম্প্রতি নেদারল্যান্ডের বিশেষজ্ঞরা এমনই এক মূর্তির সিটি স্ক্যান করে চমকে গিয়েছেন৷ রিপোর্টে উঠে এসেছে, মূর্তির ভিতরেই রয়েছে একটি মমি৷ যা এক বৌদ্ধ সন্ন্যাসীর৷

monk-1বিশেষজ্ঞদের ধারণা, বৌদ্ধ সন্ন্যাসীরা নিজেদের মৃত্যু আসন্ন বুঝতে পেরে সমাধিতে চলে যেতেন৷ মৃত্যুর পর তাঁদের দেহ মমিতে রূপান্তর করা হত৷  সেই মমি তারও অনেক পরে বিশেষ আকৃতির মূর্তির ভিতরে ঢুকিয়ে দেওয়া হত৷
সিটি স্ক্যান রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, যে বৌদ্ধ সন্ন্যাসী মৃত্যুর জন্য সমাধিতে গিয়েছিলেন, তিনি সঙ্গে একটি বাঁশের ফাঁপা ছড়ি রেখেছিলেন৷  যতক্ষণ মৃত্যু না আসে ততক্ষণ শ্বাস নেওয়ার জন্যই ব্যবহার করেছিলেন এই ছড়ি৷ সেই অবস্থায় পদ্মাসনে বসেই তিনি মৃত্যুকে বরণ করেন৷ এরপর তৈরি হয়েছিল মমি৷

monk2

ধারণা করা হচ্ছে, এক হাজার বছর ধরে সেই মমি ছিল অবিকৃত৷ অন্তত দুশো বছর আগে সেই সন্ন্যাসীর ভক্তরা লক্ষ্য করেছিলেন মমির ক্ষতি হতে শুরু করেছে৷ সংরক্ষণের জন্য সেই মমি সোনায় মুড়ে এক মূর্তির ভিতরে রেখে দেওয়া হয়৷ এক্স রে রিপোর্টে দেখা গিয়েছে মূর্তির ভিতরে থাকা সেই মমি৷ ডাচ গবেষকরা জানিয়েছেন,এই মমির মধ্যে রয়েছে আরও অনেক তথ্য৷ কী সেই তথ্য তা জানতে নিরন্তর চলছে গবেষণা৷

Leave A Reply

Your email address will not be published.