মোহনপুরে বোরা ধান কেটে বাড়িতে আনার জন্য ব্যস্ত কৃষকরা

১৪২

রিপন আলী, মোহনপুর প্রতিনিধি: মোহনপুর উপজেলা বোরো ধান কেটে বাড়িতে আনার জন্য ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। আজ সোমবার (৯ এপ্রিল) উপজেলার ২০ শতাংশ ধান কাটা হয়েছে। বাকী ধান কাটতে কৃষকের পাশাপাশি অতিরিক্ত শ্রমিক ও মাঠে নেমেছে। মোহনপুর উপজেলার কৃষি অফিস জানায়, এ পযন্ত ২০ শতাংশ জমির ধান কাটা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে ২৫ মে ৯৬ শতাংশ ধান কাটা হবে। পুরোপুরি ধান সংগ্রহ করতে ৩০ মে পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে। তবে বন্যার আভাস না থাকলেও ঝড়ো বাতাস ও বৃষ্টি আভাস থাকায় দ্রুত পাকাঁ ধান কাটার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে কৃষকদের।

জানা গেছে, বোরো ধানই হলো কৃষকদের মূল সম্পদ। তাই এই মৌসুমে বোরো ধানের ব্যাপক চাষাবাদ করেন কৃষকরা। ফসলটির উপর নির্ভর করে কৃষকদের পুরো বছরের চলার পথ তৈরি হয়। কিন্তু এ মৌসুমের ঝড়বৃষ্টি বোরো ধানের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ায়। এসময়ে পানিতে ডুবে যাওয়ার আগেই ধান সংগ্রহ করতে হয়। এখন পর্যন্ত বড় কোনো ধরনের বৃষ্টিপাত হয়নি, তবে সম্ভাবনা আছে। আকাশে মেঘ রয়েছে। এরইমধ্যে উপজেলার অনেক স্থানে ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি হয়েছে। বেশ কিছু নিচু জমির ধান পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

উপজেলার বেলনা গ্রামের কৃষক করিম, এরশাদ, কালা মিয়া, হাছন জানালেন, তারা এখন পুরোদমে ধান সংগ্রহে ব্যস্ত। এদিকে শ্রমিক সংকট ও দেখা দিয়েছে। ঝড়ো বাতাসের কারনে ধান গাছ হেলে পড়াই কম্বাইন্ড হারভেস্টর মেশিন দিয়ে ধান কাটা সম্ভব হচ্ছে না।

মোহনপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রহিমা খাতুন বলেন, উপজেলা এ মৌসুমে প্রায় ৬ হাজার ৬ শত ৭৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৩ হাজার ৩শত ৭৫ মেট্রিক টন প্রায় । ২৫ এপ্রিল থেকে ধান কাটা শুরু হয়েছে। আশা করছি, মে মাসের ৩০ তারিখের মধ্যে ১০০ শতাংশ বোরো ধান কাটা হয়ে যাবে।

Comments are closed.