যশের লেগ-পুল সেশন! ভিক্টিম সঞ্জনা

381

বিনোদন অনলাইন ডেস্ক : কলকাতা-ছবি মুক্তি পাওয়ার আগেই গোটা টলিউড তাঁদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ৷ নতুন জুটি বলে যশ-সঞ্জনার ডিমান্ড এক্কেবারে তুঙ্গে৷ ‘ফিদা’ ছবির সূত্রেই আলাপ একে অপরের সঙ্গে৷ অল্প সময়ের মধ্যেই তাঁদের মাখোমাখো কেমিস্ট্রি দেখে, টলি পাড়া থেকে নেটদুনিয়ায় উপচে পড়ছে গসিপ৷ সঞ্জনার প্রতি যশের হাবভাবে বাতাসে বইছে অন্য সুর৷ কখনও নায়িকাকে মন দিয়ে বাংলা শেখান, আবার কখনও শেখাতে শেখাতে ঠাট্টা করেন তাঁর বাংলা অ্যাক্সেন্ট নিয়ে৷

সম্প্রতি শোনা গেল, ‘ফিদা’র সেটে হিরো বেশ ভালো করম লেগ পুল করেছেন হিরোইনের৷ শ্যুটিংয়ের ফাঁকে একটি ছোট্ট সাক্ষাৎকারে, ছবিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা ইংরেজিতে ব্যক্ত করেন নায়িকা৷ কিন্তু যশ তাঁকে চেপে ধরে বাংলায় পুরোটা বলার জন্য৷ বাধ্য মেয়ের মত তেমনটাই করেন নায়িকা৷
তবে কেমন হয়েছে তাঁর বাংলা! তা নিয়ে নায়কের প্রতিক্রিয়া পেতে গিয়ে নাজেহাল হতে হয় অভিনেত্রী৷ ঠাট্টার

ছলে সঞ্জনাকে বলেন, “আমি তো তোমার শিক্ষক নই, পরিচালককে জিজ্ঞেস করো কেমন বাংলা বললে তুমি৷ উনিই তোমার শিক্ষক৷” ‘এসআরএফটিআই’ তে চলছিল একটি দৃশ্যের শ্যুটিং৷ সেই ফাঁকে শুরু হয় লেগ-পুলিং সেশন৷

মসক্যাটের মেয়ে সঞ্জনার৷ স্বাভাবিকভাবেই বাংলাতে তিনি দুর্বল৷ তবে বাংলাতে সরগর হওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি৷ যশ রীতিমত টিউশনও দিচ্ছেন তাঁকে। তবে শুধু যশ কেন বলি, সঞ্জনার বাংলার টিচার হয়েছেন যশের মাও৷

অভিনেত্রী আগে একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, যশ ফিল্মের সেটে ভীষণ সাপোর্টিভ৷ সারাক্ষণ ইয়ার্কি-ঠাট্টার মধ্যে দিয়ে সকলকে রিল্যাক্সড রাখেন৷ তাহলে বলা যেতেই পারে এই লেগ-পুলিংও সেই রিল্যাক্সেশনের একটা পার্ট৷ যেহেতু নায়িকা টলিউডে একদম নতুন, তাঁর নার্ভাসনেস কাটানোর জন্যই এমন পন্থা বেছে নিয়েছেন হিরো৷

অ্যাকশন রোম্যান্সে ভরপুর ‘ফিদা’ মুক্তি পাবে চলতি বছরের ইদের মরশুমে৷ সঞ্জনা বন্দোপাধ্যায়ের ডেবিউ নিয়ে অসংখ্য সিনেপ্রেমীরা বেশ উত্তেজিত৷ সঞ্জনা ছাড়াও নতুন জুটির ফ্রেশ কেমিস্ট্রিও কিন্তু ছবির ইউএসপি৷

x