রাজধানীর ৫ হাসপাতালকে ২১ লাখ টাকা জরিমানা

489

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম : বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে রাজধানীর ৫টি হাসপাতালকে ২১ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) এ অভিযানে পরিচালনা করা হয়। অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম।

অর্থদণ্ড প্রাপ্ত হাসপাতালগুলো হলো- রাজধানীর কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতাল, পল্টনের ইসলামী ব্যাংক স্পেলাইজড হাসপাতাল, রাজধানী ডায়াগনস্টিক সেন্টার, রয়েল ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং ইফতি ডায়াগনস্টিক সেন্টার।

মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট (ডায়াগনস্টিক টেস্টে রোগ নির্ণয়ের জন্য ব্যবহৃত রাসায়নিক উপাদান) ব্যবহার, টেস্ট না করে রিপোর্ট দেয়া, অপারেশন থিয়েটারে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ এবং সার্জিক্যল সামগ্রী ব্যবহার করার অপরাধে ওই ৫টি হাসপাতালকে জরিমানা মোট ২১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় রয়েল এবং ইফতি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম ব্রেকিংনিউজকে জানান, অভিযানে কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালটির ল্যাবে মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট এবং অপারেশন থিয়েটারে কিছু ঔষধ পাওয়া যায়। যেগুলোর মেয়াদ গত এপ্রিল ও মে মাসেই শেষ হয়েছে। তাই তাদেরকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও একই অভিযোগে পল্টনের ইসলামী ব্যাংক স্পেসালাইজড হাসপাতালকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে পল্টনের রাজধানী ডায়াগনস্টিক সেন্টার, রয়েল ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং ইফতি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে ভুয়া মেডিকেল রিপোর্ট তৈরির প্রমাণ পেয়েছেন আদালত। বিদেশে গমনেচ্ছুরা সাধারণত এ তিনটি সেন্টার থেকে মেডিকেল টেস্ট করিয়ে দূতাবাসে জমা দেয়।

সারওয়ার আলম বলেন, এ তিনটি সেন্টারে ভুয়া রিপোর্ট তৈরির প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ কারণে রাজধানীকে সাত লাখ ও ইফতিকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি রয়েল এবং ইফতি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/টিটি/

x