রাজশাহীতে দুই সাংবাদিকের ওপর আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর সশস্ত্র হামলা

0 116

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনে প্রচারণার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর নির্দেশে, তার সশস্ত্র ক্যাডারদের হামলার স্বীকার হয়েছেন দুই সাংবাদিক। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে শাহাপুর ও পেয়াদাপাড়া এলাকায় বিদ্রোহী প্রার্থী মুক্তার আলীর কর্মী-সমর্থকরা এ হামলা চালান বলে অভিযোগ করেছেন আহত দুই সাংবাদিক।

আহতরা হলেন মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের রাজশাহী ক্যামেরাপার্সন মাহফুজুর রহমান রুবেল ও দিপ্ত টিভির ক্যামেরা পার্সন ইসলাম উদ্দিন।

রুবেলের মোবাইল ভেঙে ফেলা হয়েছে। এসময় রুবেলের ক্যামেরাটিও ছিনিয়ে নিয়ে ভাংচুরের চেষ্টা চালানো হয়। গণসংযোগকারী রাজশাহী জেলা যুব মহিলা লীগের এক নারী কর্মীর শাড়ি ধরে টেনে-হিঁচড়ে তাকে লাঞ্চিত করা হয় বলেও অভিযোগ ওঠে।

এদিকে ঘটনার পরে স্থানীয় লোকজন গিয়ে পরে দুই সাংবাদিকসহ লাঞ্চিতের শিকার যুব মহিলা লীগের নেতা-কর্মীদের উদ্ধার করেন।

সে সময় থানায় খবর দেওয়া হলেও পুলিশ রহস্যজনক কারণে ঘটনার ৪ ঘন্টা পরও বিকেল সাড়ে ৩ সময় ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছাননি।

এ নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে অংশ নিয়েছেন শাহিদুজ্জামান শাহিদ, বিএনপির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তোজাম্মেল হোসেন এবং স্বতন্ত্র (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) বর্তমান মেয়র মুক্তার আলী নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

মুক্তার আলী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রাথী হলেও পুলিশ তাকে নানাভাবে সহযোগিতা করছেন বলেও অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী শহিদুজ্জামান শহিদ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.