রাশিয়াকে ‘সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তা’ বিষয়ে সমর্থন অব্যাহত রাখবে চীন

70
চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং (বাঁয়ে) ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ছবি : সংগৃহীত

রাশিয়ার ‘সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তা’র বিষয়ে সমর্থন দেওয়া অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। আজ বৃহস্পতিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ৬৯তম জন্মদিনে তাঁকে ফোন করেন মিত্রদেশ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। সেই ফোনালাপে চীনের পক্ষ থেকে রাশিয়ার প্রতি সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলে জানান শি জিনপিং।

জন্মবার্ষিকীতে শি জিনপিংয়ের বরাতে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আগামী সময়ে দুদেশের মধ্যে কৌশলগত সমন্বয় আরও শক্তিশালী করার উদ্যোগ নেওয়া হবে।

ক্রেমলিন পৃথক বার্তায় জানিয়েছে, প্রতিবেশী দুই পরাশক্তি দেশের সম্পর্ক এখন সবচেয়ে ভালো অবস্থায় আছে। দেশ দুটির অংশীদারিত্বকে ধারাবাহিকভাবে আরও শক্তিশালী ও স্বয়ংসম্পূর্ণ করার প্রতিজ্ঞার কথা জানানো হয়।

সংশ্লিষ্টদের মতে, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের পর এটি দুই নেতার দ্বিতীয় কথোপকথন। রাশিয়ার ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ শুরুর অল্প কয়েক দিন পর পুতিনকে ফোন করেছিলেন শি জিনপিং।

চীন এখনো রাশিয়ার সামরিক হামলাকে ‘আগ্রাসন’ বলা থেকে বিরত থেকেছে। হামলার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে নিন্দাও জানায়নি দেশটি।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ক্রেমলিনের সঙ্গে সুর মিলিয়ে সংকটের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোকে দায়ী করেছে।

গতকালের ফোনালাপে শি জিনপিং জোর দিয়ে বলেন, শুরু থেকেই চীন ‘নিরপেক্ষ দৃষ্টিতে ইউক্রেন পরিস্থিতির পর্যালোচনা করেছে’। তিনি সব পক্ষকে এ সংকটের সুষ্ঠু সমাধান খুঁজতে উদ্বুদ্ধ করেছেন।

গত মার্চে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে ফোনালাপেও একই সুরে কথা বলেছিলেন জিনপিং। তাঁর মতে, ইউক্রেন সংকটের সুষ্ঠু সমাধানে চীন তার ভূমিকা পালন করতে ইচ্ছুক।

x