রাসিকের অর্থ ও সংস্থাপন স্থায়ী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

0 115

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের অর্থ ও সংস্থাপন স্থায়ী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে নগর ভবনের সরিৎ দত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

সভায় সভাপতির বক্তব্যে মেয়র বলেন, কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলের সম্মিলিত প্রয়াসে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন আর্থিক অবস্থার উন্নীত হয়েছে। প্রতি মাসের শুরুতেই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন প্রদান সম্ভব হচ্ছে। একই সাথে অন্যান্য ব্যয় নির্বাহে গতির সঞ্চার হয়েছে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সকল পাওনাদি পরিশোধ করা হচ্ছে। পরিকল্পিত নগরায়নে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

 

নতুন নতুন রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ, হাইরাইজড বিল্ডিং নির্মাণ অব্যাহত রয়েছে। দ্রুত নগরায়নে এ নগরীতে আবাসন খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। হোল্ডিং ট্যাক্স সিটি কর্পোরেশনের আয়ের মূল উৎস। যা আগামীতে সিটি কর্পোরেশনের আয়ের বড় খাত হিসেবে ভূমিকা রাখবে। কর নির্ধারণ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলকে আরও গুরুত্বের সাথে দায়িত্ব পালনের অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্মাণাধীন মার্কেটসমূহের দ্রুততম সময়ে কাজ সমাপ্ত করে তা আয়ের খাত হিসেবে পরিণত করতে হবে। অবৈধ বিলবোর্ডসমূহ অপসারণে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা প্রদান করেন মেয়র।

সভায় গত ১৭.১২.২০২০ তারিখ ও ১৯.১.২০২০ তারিখে অনুষ্ঠিত সভার কার্যবিবরণী দৃঢ়করণ করা হয়। জুলাই ২০২০ হতে ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত আয় ও ব্যয় পর্যালোচনা, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের নির্মাণাধীন সকল মার্কেট কাজের অগ্রগতি বিষয়ে আলোচনা করা হয়। জিয়া শিশুপার্কের ইজারা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। পশু জবাই ফি পুণঃ নির্ধারণ প্রসঙ্গে আলোচনা করা হয়। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সম্পত্তির হালনাগাদ তালিকা প্রস্তুত বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

 

মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে রাসিকের সকল আদায় কার্যক্রম সম্পন্নের বিষয়ে আলোচনা করা হয়। অটোরিক্সা ভাড়া পুনঃনির্ধারণ বিষয়ে আলোচনা করা হয়। হোল্ডিং নম্বর প্লেট স্থাপনের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

সভায় রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, কমিটির সদস্য রাসিকের ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল হামিদ সরকার, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযীম, ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুস সোবহান, প্রধান প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ মোঃ নূর-ঈ-সাঈদ, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী নূর ইসলাম তুষার, বাজেট কাম হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম খান, ভারপ্রাপ্ত উপসচিব তৈমুর হোসেন, প্রধান কর নির্ধারক মুঞ্জুরুল আলম, ট্যাক্সেশন কর্মকর্তা লাইসেন্স সারোয়ার হোসেন খোকন, ট্যা´েশন কর্মকর্তা (কর) ইমতিয়াজ আহমেদ শিমুল, ভাটেরিনারি সার্জন ডা. ফরহাদ উদ্দিন, সম্পত্তি কর্মকর্তা আবু নূর মোঃ মতিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x