রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর করা শিক্ষার্থীদের কাজ নয় : প্রধানমন্ত্রী

35
গণভবন থেকে বুধবার সকালে ভার্চুয়ালি রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শিশু একাডেমি প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল এবং ধানমন্ডি-২৭ নম্বরে জয়িতা টাওয়ারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

সড়ক দুর্ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর করা শিক্ষার্থীদের কাজ নয়, এটা কেউ করবেন না। দয়া করে যার যার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে যান, লেখাপড়া করুন। আর যারা দোষী, অবশ্যই তাদের শাস্তি দেওয়া হচ্ছে।’

গণভবন থেকে আজ বুধবার সকালে ভার্চুয়ালি রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শিশু একাডেমি প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল এবং ধানমন্ডি-২৭ নম্বরে জয়িতা টাওয়ারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় দোষীদের খুঁজে বের করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অনেক সতর্ক এ ব্যাপারে। সঙ্গে সঙ্গে দোষীদের খুঁজে বের করা হয়েছে। আর, সব জায়গায় ভিডিও ফুটেজ আছে। যেকোনো সময় যে অপরাধ করছে, তাদের ধরে ফেলা খুব একটা কঠিন হচ্ছে না। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করেই সেটা করা হচ্ছে।’

শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘ভবিষ্যতে গাড়ি ভাঙচুর, আগুন দেওয়া… যারা করবে, তাদেরও শাস্তি দেওয়া হবে। যে গাড়িতে আগুন দেওয়া হবে, সে গাড়িতে যদি কেউ মারা যায় বা পোড়ে, তাহলে এ ক্ষেত্রেও কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে। এটা সবাইকে মাথায় রাখতে হবে।’

নারী ও শিশুদের কল্যাণে বঙ্গবন্ধু এবং সরকারের উদ্যোগ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘দেশের নারীদের সমাজে প্রতিষ্ঠা এবং সমঅধিকার নিশ্চিত করেছে আওয়ামী লীগ।’

এ সময় করোনার নতুন ঢেউ সম্পর্কে সবাইকে সচেতন থাকারও পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। রাস্তাঘাটে চলাচল করতে ট্রাফিক আইন মেনে চলারও আহ্বান জানান তিনি।

x