রৌমারী ছিছকাটা টোকাই চোরের উদ্রব্যে অতিষ্ট গ্রামবাসী

0 23

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রৌমারীর টোকাই চোরের ছিছকাটার উপদ্রব্যে ঘুম নেই এলাকাবাসীর। প্রায় মাসাধিক কাল সময় ধরে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে চোর ঢুকে অভিনব কায়দায় চুড়ি করছে। ঘরের সিধ না কেটে বাড়ির লোকজনের চোখ ফাঁকি দিয়ে সন্ধার পর ঘরে ঢুকে খাটের নিচে বা কৌশলে লুকিয়ে থাকছে। কখনো জানালা দিয়ে হাত বাড়িয়ে লুটে নিচ্ছে মোবাইল ফোন, লাইট, বালিশের নিচে বা শাটের পকেটে থাকা টাকা কড়ি

গতকাল জন্তির কান্দা গ্রামে ছায়দারের বাড়ি থেকে শাহিনের মোবাইল ফোন চুড়ির প্রাকালে দক্ষিন টাপুরচর গ্রামের মৃত্যু আমজাদ হোসেনের পুত্র মোঃ নজরুল ইসলাম (৩৭) কে  রাত ৩টা ৩০ মিনিটে  হাতেনাতে আটক করে। আটক হওয়ার পর চোর মটর সাইকেল আরোহী একই গ্রামের হাফিজের পুত্র বেলাল হোসেন (৩২) কে ডাকেন। বেলাল হোসেন এলে এলাকাবাসী তাকেও  আটক করে। পরে এলাকাবাসী চোরের নিকট চুড়ি বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাঙ্গবাঙ্গ মিলে এলাকার বিভিন্ন অ লে চুড়ি করে থাকেন। মটর সাইকেল আরোহী বেলালের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন ,বেললের গাড়ি ভাড়া করে বিভিন্ন  গ্রামে যান।

চুড়ি করতে যাওয়ার সময় ৩০০ টাকা ও ফেরার সময় ৫০০ টাকা দেন। এব্যাপারে বেলাল বলেন, আমি মটর সাইকেলে ভাড়া টানি আমাকে যে ডাকে সেখানেই যাই। পরে চোর দ্বয়কে রৌমারী থানা পুলিশে সোপর্দ করেন। তবে এলাকাবাসীর দাবী ছিছকাটা চোরের উপদ্রব থেকে জানমালের হেফাজতে আইনি সহায়তা দেওয়া হউক।

রৌমারী থানার এস আই আব্দুস ছালাম জানান, চোর দ্বয়কে চুড়ির অপরাধে মামলা করে কুড়িগ্রাম জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। যার মামলা নং ৮।  এমনকি তথ্য উৎঘাটনের জন্য চোরের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.