লক্ষ্মৌর টানা ২য় জয়ে হায়দরাবাদের হার

১৮৭

প্রথম ম্যাচের পর দ্বিতীয় ম্যাচেও জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে লক্ষ্মৌর সুপার জায়ান্টস। অপর দিকে টানা দ্বিতীয় হার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের।

আবেশ খানের দুরন্ত বোলিংয়ে ভর করে সোমবার লক্ষ্মৌ ১২ রানে হারিয়ে দিল হায়দরাবাদকে। লক্ষ্মৌর তোলা ৭ উইকেটে ১৬৯ রানের জবাবে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫৭-কে আটকে গেল হায়দরাবাদ।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেই ভাল হয়নি লক্ষ্মৌর। নিজের পর পর দুই ওভারে দু’টি উইকেট তুলে নেন ওয়াশিংটন সুন্দর। দ্বিতীয় ওভারেই প্রথম উইকেট হারায় লক্ষ্মৌ। সুন্দরের বলে কেন উইলিয়ামসনের হাতে ক্যাচ দেন কুইন্টন ডি কক। আগের ম্যাচে লক্ষ্মৌকে জেতানো এভিন লুইসকে পরের ওভারেই তুলে নেন সুন্দর। স্পিনের ফাঁদে ফেলে এলবিডব্লিউ করেন।

পঞ্চম ওভারে মানিশ পান্ডেকে হারায় লক্ষ্মৌ। পাওয়ার প্লেতে ৩ উইকেট চলে যায় তাদের। স্কোরবোর্ডে রান ছিল মাত্র ৩২। সেখান থেকে তাদের হাল ধরেন অধিনায়ক কেএল রাহুল এবং দীপক হুদা। দুজনে মিলে চতুর্থ উইকেটে ৮৭ রান যোগ করেন। হুদা এরমধ্যে বেশি আগ্রাসী ছিলেন। তার ৩৩ বলে ৫১ রানের ইনিংসে রয়েছে তিনটি চার এবং তিনটি ছয়। ১৯তম ওভারে ফিরে যান রাহুল। ৫০ বলে ৬৮ করেছেন তিনি। এর পর আয়ুষ বাদোনি ১২ বলে ১৯-এর সৌজন্যে হায়দরাবাদকে ১৭০ রানের লক্ষ্যমাত্রা দেয় লক্ষ্মৌ।

হায়দরাবাদও শুরুটা ভাল করেনি। চতুর্থ ওভারেই ফিরে যান অধিনায়ক উইলিয়ামসন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ফিরে যান অভিষেক শর্মাও। ঠিক যখন বড় রান খেলার দিকে এগোচ্ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার এইডেন মার্করাম, তখন তাকে তুলে নেন ক্রুণাল পান্ডে। দলকে ক্রমশ জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন রাহুল ত্রিপাঠি। তবে তাকেও তুলে নেন ক্রুনাল।

দলকে জেতানোর ভার তখন ছিল নিকোলাস পুরান এবং ওয়াশিংটন সুন্দরের হাতে। কিন্তু একটি ওভারই বদলে দিল খেলা। ১৮তম ওভারে আবেশ খান ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়।

Comments are closed.