লাতিন ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই শুরু শুক্রবার

0 ৯২
কোপার ফেবারিট দলগুলো

ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর ইউরো চলছে। এর মাঝেই বাজতে চলেছে লাতিন ফুটবলের সর্বোচ্চ টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকার দামামা। উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকার ১৬ দল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হচ্ছে কনমেবল অঞ্চলের সেরাদের সেরা হওয়ার লড়াই।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ও কানাডার ম্যাচ দিয়ে আগামীকাল শুক্রবার (২১ জুন) পর্দা উঠবে কোপার ৪৮তম আসরের। ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম প্রাচীন এই টুর্নামেন্টে এবার নিরঙ্কুশ ফেভারিট লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। ফুটবল সৌন্দর্যের লীলাভূমি লাতিন অঞ্চল। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার পাশাপাশি এখানে আছে চিলি, উরুগুয়ে, কলম্বিয়ার মতো দলগুলো। প্রতিযোগিতা তাই কোন অংশেই কম নয়।

যুক্তরাষ্ট্র বিশাল কলেবরেই আয়োজন করতে চলেছে কোপা। ১৪টি ভেন্যুতে আগামী এক মাস ফুটবলপ্রেমীদের বুঁদ করতে প্রস্তুত আয়োজকরা। একই সঙ্গে তৈরি অংশ নেওয়া দলগুলো। চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা সর্বশেষ ২০২১ এর আসরে ব্রাজিলকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল। যে শিরোপা জয়ের পর মেসি-ডি মারিয়াদের ফুটবলচিত্রই বদলে যায়। এরপর হাতে ওঠে বিশ্বকাপ। দলকে ইউরোপিয়ান স্টাইলে পাওয়ার ফুটবলের স্বাদ দিয়েছেন লিওনেল স্কালোনি।

অন্যদিকে, গতবার ফাইনাল খেললেও এবার ব্রাজিল অতটা শক্তিশালী নয়। নতুন কোচ দরিভাল কতটা কী করতে পারেন নেইমারবিহীন দল নিয়ে, সেটি বড় প্রশ্ন। দলটি ব্রাজিল বলে ভক্তরা নিরাশ হওয়ার কিছু নেই। যে কোনো সময় জ্বলে উঠতে পারে সেলেসাওরা। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন হলেও কোপায় পিছিয়ে ব্রাজিল। এখানে ১৫ বার করে শিরোপা জিতে সবার ওপরে আছে আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ে। ব্রাজিলের ট্রফি ৯টি।

কোপা আমেরিকা অনুষ্ঠিত হবে গ্রুপ ও নকআউট ফরম্যাটে। ১৬টি দল চার গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে প্রথম পর্ব। রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে প্রতি গ্রুপের দল একবার করে একে অপরের মুখোমুখি হবে। সেরা দুটি করে মোট আট দল জায়গা করে নেবে কোয়ার্টার ফাইনালে। যেখান থেকে শুরু হবে নকআউট পর্ব। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামবে কোপা আমেরিকার।

Leave A Reply

Your email address will not be published.