শেখ হাসিনা দেশের কল্যাণে স্বপ্ন দেখেন, দেখান, বাস্তবায়ন করেন : শামীম

0 9

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশেকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি দেশের কল্যাণে স্বপ্ন দেখেন, স্বপ্ন দেখান এবং সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেন।’

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সদস্যদের ছেলে-মেয়েদের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের কৃতিত্ব সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন তিনি।

এনামুল হক শামীম বলেন, ‘শেখ হাসিনা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ বলেছিলো অনেকে ব্যঙ্গ করেছিলো, আজকে দেখেন সবাই ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা নিচ্ছে।’

সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদের সম্পর্কের কথা তুলে ধরে আওয়ামী লীগের এই সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, ‘সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদদের পেশা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। জীবন বাজি রেখে তারা কাজ করেন। অগ্নিকাণ্ড, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড, গোলাগুলির মধ্যে থেকেও কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত থাকেন সাংবাদিকেরা। আমরা যারা রাজনীতি করি তারা সাংবাদিকদের দরদটা বুঝি। আবার সাংবাদিকরাও রাজনীতিবিদদের দরদটা বুঝেন। একজন রাজনীতিবিদের সাথে সাংবাদিকের সম্পর্ক না থাকলে প্রকৃতি রাজনীতিবিদ হওয়া মুশকিল। একজন সাংবাদিকের মুনশিয়ানা লেখনীর মাধ্যমে একজন রাজনীতিবিদকে ওপরে তুলে পারে আবার নিচেও নামাতে পারে।’

উপস্থিত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, ‘তোমার যারা মেধায় স্বাক্ষর রেখেছো। এসএসসিতে ভালো করেছো, এইচএসসিতেও আরও ভালো করবে। তারপরে উচ্চশিক্ষাতেও মেধার স্বাক্ষর রাখবে। তোমরা নিজেরা ভালো মানুষ হওয়ার জন্য চেষ্টা করবে। স্বাধীনতার প্রশ্নে, মুক্তিযুদ্ধের প্রশ্নে, তোমরা কখনো আপোষ করবে না। আজকে বাংলাদেশ যদি স্বাধীন না হতো তাহলে বাঙালি ছেলেরা মন্ত্রী হওয়া তো দূরের কথা, সচিবও হতে পারতো না। একজন বড় অভিসার হওয়ার সুযোগ থকতো না।’

‘বঙ্গবন্ধু এদেশে স্বাধীন করেছে বলেই আজকে বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। পাকিস্তানের নেতারা আজকে বাংলাদেশের জায়গায় পৌঁছাতে যাচ্ছে বলেও যোগ করেন উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে এসময় আরও বক্তৃতা করেন সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের পরিচালক মো. গোলাম ফারুক, ডিআরইউ’র সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খান প্রমুখ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.