সংশয়ে সালমান, কী করবেন জানুয়ারিতে

89
সুপারস্টার সালমান খান। ছবি : ইনস্টাগ্রাম থেকে

সুপারস্টার সালমান খান এখন ফরহাদ সামজির ‘ভাইজান’ সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত। এ সিনেমার অধিকাংশ শুট এরই মধ্যে হায়দরাবাদে সম্পন্ন হয়েছে। পরবর্তী শিডিউল মুম্বাইয়ে।

বিনোদনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বলিউড বাবলের বিশেষ প্রতিবেদন বলছে, সালমান খানের আশা, চলতি বছরের নভেম্বরের মধ্যেই ‘ভাইজান’ সিনেমার কাজ শেষ করতে পারবেন এবং ৩০ ডিসেম্বর বড় পর্দায় মুক্তি দেবেন। এর পরের সিনেমা কোনটি, তা নিয়ে ভক্তদের আগ্রহ রয়েছে।

সালমান খানের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র পোর্টালটিকে বলেছে, ‘ভাইজান’-এর পর দুই সিনেমা নিয়ে কাজ চলছে আর দুটিই সিক্যুয়েল। ‘নো এন্ট্রি’ ও ‘দাবাং ৪’ সিনেমা নিয়ে সংশয়ে আছেন সালমান। তিনি চান, ২০২৩ সালে দুই সিনেমা মুক্তি দিতে। ‘টাইগার থ্রি’র পর দ্বিতীয় সিনেমা মুক্তির প্রক্রিয়াও এরই মধ্যে তিনি শুরু করেছেন।

মজার ব্যাপার হলো, ‘ভুল ভুলাইয়া টু’র সাফল্যের পর আনিস বাজমির সঙ্গে ‘নো এন্ট্রি’র কাজ শুরু করতে খুব আগ্রহী সালমান খান। কিন্তু এখনও কিছু বিষয় সমাধা করতে হবে।

অন্যদিকে, তিগমাংশু ধুলিয়া এরই মধ্যে ‘দাবাং ৪’-এর আইডিয়া প্রস্তুত করেছেন। খুব দ্রুতই সালমান খানকে জানাবেন তিনি। যদি তিগমাংশুর গল্প সালমানের পছন্দ হয়, তবে চতুর্থ বারের মতো চুলবুল পান্ডে রূপে হাজির হবেন সালমান।

ওই সূত্র আরও জানিয়েছে, দুই সিনেমাই দারুণ। একটি সালমান খানের আইকনিক চরিত্র চুলবুল পান্ডে আর আরেকটি বহু বছর পর তাঁর কমেডি ঘরানার সিনেমায় ফিরে আসা। সালমান দুই সিনেমা নিয়েই উচ্ছ্বসিত এবং সেপ্টেম্বরে একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছাবেন।

যা হোক, সালমানের আসন্ন ‘ভাইজান’ সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন পূজা হেজ, শেহনাজ গিল, সিদ্ধার্থ নিগমসহ অনেকে।

x