সাপাহারে জমে উঠেছে আমের বাজার

0 31

মনিরুল ইসলাম,সাপাহার(নওগাঁ) প্রতিনিধি: আমের রাজধানী খ্যাত নওগাঁর সাপাহারে সর্বত্রই এখন আম আর আম। বাগানেতো আছেই তারপরেও হাটে বাজার সহ সব জায়গাতে দেখা যাচ্ছে আমের সমারোহ। এরইমধ্যে বাজারে এসেছে ল্যাংড়া, খিরসাপাত, বিভিন্ন জাতের গুটি আম সহ নানা জাতের বাহারী সুস্বাধু আম।

এই জনপদে চলছে আমের বিরামহীন বেচাকেনা। ইতিমধ্যে সাপাহার সদরে অবস্থিত আম আড়ত গুলোতে আম বিক্রয়ের জন্য ভীড় করছেন এলাকার আম চাষীরা। শুধু তাই নয় বাইরের এলাকা হতেও আম ক্রয়ের জন্য এসেছেন আম ব্যাবসায়ীরা। চলতি বছরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মোট ৮ হাজার ২শ ৫০ হেক্টর জমিতে আমবাগান করা হয়েছে।

আমের উৎপাদন গত বছরের ন্যায় এ বছরেও ভালো হওয়াতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এলাকার আম চাষীরা। এছাড়াও ন্যায্য মূল্যে আম বিক্রয় করতে পেরে আনন্দিত এলাকার আম চাষীরা। আম ব্যবসার সাথে জড়িত ব্যবসায়ী ও গাছ থেকে আম ভাঙ্গা কাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের গাছ থেকে আম নামানো ও বাজারজাত করনের জন্য যেন ফুরসত নেই।

আম প্যাকেট জাত করনে ব্যাস্ত ক্রেতা বিক্রেতারা। বর্তমানে এই উপজেলায় প্রচুর পরিমাণে আম উৎপাদন হওয়ার ফলে কয়েক হাজার লোকের মৌসুমি কর্মসংস্থানও হয়েছে। এ ব্যবসা চলবে জুলাই , আগষ্ট পর্যন্ত। আম ব্যবসার সাথে জড়িতদের মতে মৌসুমি কর্মসংস্থানের ফলে সাপাহার অর্থনীতি চাঙ্গা হয়েছে। সে সঙ্গে বেড়েছে ব্যাংক লেনদেন।

উপজেলার আম বাজার গুলি ক্রেতা-বিক্রেতায় মুখরিত থাকছে প্রতিনিয়ত। এ কারণে জমে উঠেছে আমের ব্যবসা। ফলন ভাল থাকায় প্রায় হাজার কোটি টাকার আম বানিজ্য হবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা । এখানকার আম অধিকতর মিষ্টি ও নিরাপদ হওয়ায় দেশে এবং বিদেশে এখানকার আমের চাহিদা রয়েছে।

ভবিষ্যতে এখানে প্রচুর আম চাষ হবে বলে তিনি আশা করছেন এলাকার আম চাষী সহ অভিজ্ঞ মহল। আম বাজারজাত করণে সকল প্রকার প্রশাসনিক সহায়তা অব্যহত থাকবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কল্যাণ চৌধুরী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.