সু চি-সেনাবাহিনীর আস্থা কমিয়েছে ফেসবুক

0 209

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারের সেনাপ্রধানসহ বেশ কিছু সেনা কর্মকর্তার অ্যাকাউন্ট বাতিল করার ফেসবুকের সিদ্ধান্ত মিয়ানমার সরকার ও সেনাবাহিনীর মধ্যে আস্থা আরও কমিয়েছে। সেনাবাহিনীর ধারণা, সু চি’র সরকারের পরামর্শেই ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সেনাপ্রধানসহ শীর্ষ সামরিক কর্তাদের নিষিদ্ধ করেছে।

মিয়ানমারের প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক ইরাবতির প্রতিবেদনে বলা হয়, নিষিদ্ধের ঘটনাটি সরকার ও প্রবল ক্ষমতাধর সেনাবাহিনীর মধ্যে অস্বস্তির সৃষ্টি হয়েছে। ফেসবুকের ওই সিদ্ধান্ত অপমানজনক উল্লেখ করে পার্লামেন্টে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানায় সেনা সমর্থিত রাজনৈতিক দল ইউএসডিপি। তবে স্পিকার তা প্রত্যাখ্যান করেন।

উল্লেখ্য, রোহিঙ্গাবিরোধী বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে গত সপ্তাহে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানসহ বেশ কয়েকজন কর্মকর্তার অ্যাকাউন্ট বাতিল করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এর পাশাপাশি সেনাবাহিনী সমর্থিত বেশ কয়েকটি পেজও বন্ধ করা হয়। এ নিয়ে সেনাবাহিনী কোনো প্রতিক্রিয়া না জানালেও দেশটির গণমাধ্যমে বলা হয়, ফেসবুকের ঘোষণা আসার পর পরই সরকার নিরাপদ অবস্থান নেওয়ার চেষ্টা চালায়। সেনাবাহিনীর ধারণা সু চি সরকারের আতাতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। কেননা কয়েকদিন আগেই সিঙ্গাপুর সফরে যান সু চি।

মিয়ানমারের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র জো তায়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, ফেসবুকের ওই সিদ্ধান্ত আসার পর কয়েকজন জেনারেল তাকে ফোন করে জানতে চান, সরকার বিষয়টি আগে জানত কিনা। তিনি তাদের জানান, এ সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে সরকার বা সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং টিম কোনো ভূমিকা রাখেনি।

ব্রেকিংনিউজ/

Leave A Reply

Your email address will not be published.